B.T high school- Baghaichari

B.T high school- Baghaichari

Comments

Issss😇😇
আরেক বার🥺🥺
যদি ফিরে পেতাম 🤲🤗
স্কুল জীবনের😅☺️
সেই দিন গুলো‌🥰😘
B.T high school- Baghaichari
কলেজ ছাত্রী হলেও সাবেক বি.টি স্কুলের ছাত্রী ছিল। অন্তত বি,টি স্কুলের সকল ছাত্র ছাত্রীদের উচিত ধষকদের বিরুদ্ধে কথা বলা।
O S*k Tui Mre Hette Pelei Gele Tui Hbr Paj Mui Tre Sara Nbajim A.I Hdagan Tui Adk Din Hette Nbujoj Mre Duk Dinei Pelei
Diginala go
Miss U Jan
মনে পরে এখনও স্কুল লাইফের কথা
K g c
dol age dw agm scllan
সেই স্কুলের লাইফটাকে বেশি মিস্ করছি,,,,,,,,২০১৯ ইং ভোকেশনাল এস,এস,সি পরিক্ষার্থী
প্রিয় বিদ্যাপীঠ (বি.টি উচ্চ বিদ্যালয়)
এ বিদ্যালয়ে আছে আমার হাজারো স্মৃতি, হাজারো স্বপ্ন,হাজারো শ্রদ্ধা, হাজারো স্নেহ আর ভালোবাসা । প্রতি মূহুর্তে অনুভব করি প্রিয় বিদ্যালয়কে।
এ বিদ্যালয়ে ৫ বছর অধ্যায়ন করে আমি বুঝতে পেরেছি হাই স্কুলের জীবন টা কত আনন্দের, কতটা মধুর। ১ বছর হয়ে গেলো আমার কলেজ জীবন তবুও বুঝতে পারিনি কলেজের মজাটা কি ? শুধু প্রতি মূহুর্তে মনে পরে প্রিয় বিদ্যাপীঠের, শ্রদ্ধেয় স্যারদের, সহপাঠীদের কথা আর এখনো কানে বাজে ছুটির আর- টিফিনের ঘণ্টা । আজ কলেজে এসে হারিয়ে পেলেছি সেই সহপাঠীদদের । ইচ্ছা করে যেন আবারো ফিড়ে যাই হাই স্কুল জীবনে, টিফিনের ঘণ্টার সাথে সাথে দৌড় দিতে দোকানে আর বন্ধুদের সাথে হৈ চৈ করে খাদ্য খেতে।
B.T high school_baghaichari

B.T High School is a most popular School in Baghaichari.In 1985,It was established at Korengatali,Baghaichari beside the Kacalong River.

Operating as usual

24/08/2022

❤️❤️❤️

Photos from B.T high school- Baghaichari's post 13/01/2021

নতুন নির্মাণাধীন ভবনের কাজ চলছে প্রিয় বিদ্যাপীঠে।

13/03/2020

"হৃদয়ে বাঘাইছড়ি " নামক একটি অরাজনৈতিক, সেবামূলক সামাজিক সংগঠনের সহযোগিতায় আগামী রবিবার বি.টি উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে একটা ব্লাড গ্রুপ ক্যাম্পিং হতে যাচ্ছে। আপনারা যারা নিজেদের ব্লাড গ্রুপ কি জানেননা বা কখনো পরীক্ষা করে দেখেননি, তাদের জন্য বড় সুযোগ। মাত্র বিশ টাকা ফি দিয়ে আপনারা নিজেদের ব্লাড গ্রুপ জেনে নিতে পারবেন। আশা করব যাদের সম্ভব হয় তারা রবিবার এসে নিজেদের ব্লাড গ্রুপ জেনে নিবেন।

বর্তমান এই সময়ে নিজের রক্তের গ্রুপ জেনে রাখা অতিব জরুরি একটা ব্যাপার। যেকোন সময় আপনার রক্তের প্রয়োজন হতে পারে বা আপনার গ্রুপের রক্ত অন্যের দরকার হতে পারে,রক্ত দান করে একটি জীবন ও বাচাতে পারেন।
তাই আসুন সবাই সচেতন হই,রক্তের গ্রুপ জেনে নিই।

#বিঃদ্রঃ- বিশ টাকা ফি টা সংগঠনটির সামগ্রিক কিছু খরচ এবং সামাজিক কর্মকান্ডে ব্যায় করা হবে।

17/12/2019

স্কুলের সমসাময়িক কর্মকান্ড নিয়ে পোষ্ট করার জন্য কিছু স্টুডেন্ট দরকার যারা বর্তমানে স্কুলে অধ্যয়নরত আছে। যারা যারা আগ্রহী তারা কমেন্ট করবেন।

ধন্যবাদ

03/06/2019

#প্রাণের_বিদ্যালয় 😍😍
বি.টি উচ্চ বিদ্যালয়
বাঘাইছড়ি, রাংগামাটি পার্বত্য জেলা।

PHOTO_CREDIT - MD ISMAIL HOSEN
2013 BATCH.

14/05/2019

বাঘাইছড়ি উপজেলার অন্যতম সেরা একটি বিদ্যালয় হচ্ছে আমাদের এই বি.টি উচ্চ বিদ্যালয়। বিদ্যালয় যেমনি সেরা তেমনি এই বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী ও সেরা সেটা বলতে দ্বিধা নেই।কারণ এই বিদ্যালয় থেকে পাশ করে অনেক শিক্ষার্থী সফল হয়েছেন,অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছেন,অনেকে সরকারি চাকরি করছেন। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্যি এই বিদ্যালয়ের কিছু স্টুডেন্ট এখনো মূর্খ রয়ে গেছেন। তারা এই পেইজে মেসেজ দেন তাদের ছবি দিয়ে সাথে আবার বিভিন্ন হাস্যকর ক্যাপশন ও দেন। আজকে একজন মেসেজ দিলো হাই জানু লিখে🤣🤣

এই পেইজ টা খুলেছিলাম সবার সুবিধার জন্য,যেন স্কুলের কোন খবরাখবর আমরা এই পেইজের মাধ্যমে পেতে পারি। সবাই সবার সাথে যোগাযোগ করতে পারি। কিন্তু এইটা আসলে মোটেও হচ্ছেনা। আমি আশা রাখব,আপনারা শিক্ষনীয় কিছু এই পেইজে পোস্ট করেন,স্কুল সম্পর্কিত যেকোন তথ্য এখানে পোষ্ট করেন কিন্তু দয়া করে কোন আজেবাজে মেসেজ বা পোষ্ট দিবেন না। আর এরকম কেউ করলে নেক্সট টাইম থেকে পেইজ থেকে ব্যান করা হবে।

আর কেউ যদি পেইজে লেখার জন্য,পেইজে বিভিন্ন আপডেট দেওয়ার জন্য চান তাহলে ইনবক্স করিয়েন। পেইজে কিছু এডমিন দরকার যারা নিয়মিত আপডেট দিবেন। বর্তমান স্টুডেন্ট হলে বেটার হবে।

ধন্যবাদ।

05/01/2019

ফেলে আসা স্কুল জীবনের দিনগুলো এখন বড্ড মিস করি 😪😭

28/10/2018

এই ব্যাস্ত শহরে - অপরিচিত ভিড়ে - হঠাৎ মনে পড়ে যায়
পুরোনো দিন - কত রঙ্গিন - তাকে আটকে রাখি মায়ায়

হয়তো আমরা বহুদূর - ইশকুলের চৌকাঠ পেরিয়ে

এখনও একই মানুষ - এখনও বন্ধু

আয় আয় বন্ধুরা ফিরে আয় - শৈশব কৈশোরের ঠিকানায়
আর একটা দিন কাটুক না হয় সব ভুলে
আয় আয় বন্ধুরা ফিরে আয় - সবুজ মাঠের সোনালী ছায়ায়
হাসবো মোরা প্রান খুলে সবাই মিলে

পেছনে তাকালেই যেন এখনি ডাক দিবি
খাতার মাঝে চোখ ফাঁকি দেয়া কত না কাটাকাটি
অংক বাংলা ভূগোল ... ধুর ছাই
কিছু মনে নাই
শুধু মনে আছে খোলা হাসি আর গান এখনও একই মানুষ - এখনও বন্ধু

আয় আয় বন্ধুরা ফিরে আয় - শৈশব কৈশোরের ঠিকানায়
আর একটা দিন কাটুক না হয় সব ভুলে
আয় আয় বন্ধুরা ফিরে আয় - সবুজ মাঠের সোনালী ছায়ায়
হাসবো মোরা পরান খুলে সবাই মিলে

যারা নেই আজ পাশে তোরা থাকবি বেঁচে
সবসময় আমাদেরই মাঝে

আয় আয় বন্ধুরা ফিরে আয়

আয় আয় বন্ধুরা ফিরে আয় - শৈশব কৈশোরের ঠিকানায়
আর একটা দিন কাটুক না হয় সব ভুলে
আয় আয় বন্ধুরা ফিরে আয় - সবুজ মাঠের সোনালী ছায়ায়
হাসবো মোরা প্রান খুলে সবাই মিলে

আয় আয় বন্ধুরা ফিরে আয়

09/07/2018

B.T high school- Baghaichari

Great job. Thanks everyone for like this page.

B.T High School is a most popular School in Baghaichari.In 1985,It was established at Korengatali,Baghaichari beside the Kacalong River.

04/06/2018

B.T high school- Baghaichari's cover photo

24/03/2018

😊😊😊

সেসময় জীবন আমায় কিছু ব্যাপার শিখিয়েছিল। কোনও কিছু করার জন্য যতটা দরকার অনুপ্রেরণার, তার চাইতে অনেক অনেক অনেক বেশি দরকার---ধৈর্য ধরে কাজটির পেছনে লেগেথাকা। প্রতিদিনই রুটিন করে কাজ করে যেতে হবে। কাজটি করতে ভাল লাগুক, আর না-ই লাগুক, কাজটি করে যেতে হবে, কাজটির পেছনেই সময় দিতে হবে। মনের ইচ্ছের বিরুদ্ধে গিয়ে হলেও ঘণ্টার পর ঘণ্টা নিজেকে কাজটার পেছনে নিয়োজিত করে রাখতে হবে। পড়াশোনা করাটা প্রয়োজন হলে আনন্দে হোক আর বিনা আনন্দেই হোক, পড়াশোনা করে যেতেই হবে। অংক করতে ভাল লাগে না বলে যদি আমি কখনওই খাতাকলম নিয়ে না বসি, তবে আমি জীবনেও অংক শিখতে পারব না। এটাই বাস্তবতা। যদি আমি অনুপ্রেরণার জন্য অপেক্ষা করে থাকি, তাহলে হয়ত আমি কখনওই আমার কাজটা করতে পারব না। অনুপ্রেরণার জন্য অপেক্ষা করে থাকে যারা, ওরা কেবলই অজুহাত দেখানোর রাস্তা বানায়। আর কে না বোঝে, লোকে কেবল অর্জনকেই স্যালুট করে আর অজুহাতকে স্রেফ করুণা করে! কোনও লেখক যদি অপেক্ষা করে বসে থাকেন, কখন উনি অনুপ্রাণিত হবেন আর লিখবেন, তাহলে হয়ত উনি সারাজীবনে একটি বইও লিখতে পারবেন না। কাজ করে যাওয়ার যে প্রক্রিয়া, তা বেশিরভাগ সময়ই খুবই একঘেয়ে আর ক্লান্তিকর একটা ব্যাপার। তবু কাজ করে যেতেই হবে---ভাল লাগুক, আর না-ই লাগুক। কাজ করতে-করতেই অনুপ্রেরণা চলে আসে। অনুপ্রেরণা থেকে কাজ নয়, কাজ থেকে অনুপ্রেরণা---এ সহজ সূত্রটি একবার মাথায় গেঁথে গেলে আর পিছিয়ে পড়ে থাকার কথা নয়। আমার মনে আছে, আমি সেসময় ফেসবুক/ ভাইবার/ হোয়াটস্‌অ্যাপ/ ইমো কোথাও ভুলেও ঢুকতাম না, কোনও ফোন ধরতাম না। সবকিছুতেই আর সবাইকেই সময় দিলে সব স্বপ্ন আজীবন স্বপ্নই থেকে যাবে---এটা নিশ্চিত। আমি সবসময়ই মিলিয়ে নিতাম, আমি যা করছি, তার কি সত্যিই কোনও দরকার আছে---অন্তত এই সময়টাতে? যদি উত্তর পেতাম---না, তবে সেটি করা তৎক্ষণাৎই বন্ধ করে দিতাম। জীবনে কোন কারণে কিছু করতে পারলাম না, সেটা কোনও বিষয় না, করতে যে পারলাম না, সেটাই একমাত্র বিবেচ্য বিষয়। এ পৃথিবী কখনওই অজুহাত শুনতে প্রস্তুত নয়। নিজের উপর রাগ করে আমি আমার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটাই ডিলিট করে দিয়েছিলাম। আমি ফেসবুকে ছোটছোট গল্প লিখতাম, ওই মুহূর্তে আমার ফলোয়ার ছিল ৩৭,৮৪১ জন---আমি ফেসবুকে কতটা অ্যাক্টিভ ছিলাম, এ থেকে তা সহজেই অনুমেয়। ডিলিট করার সময় বারবারই মনে হচ্ছিল, আহা, জীবনের সবকিছু শেষ হয়ে যাচ্ছে! এতএত ফ্যান-ফলোয়ার, পোস্ট, সব চলে গেল! এখন বুঝি, ওটাই ছিল আমার জীবনের শুরু! ওইসব ফেসবুক ফ্রেন্ড, ফলোয়ার খুবই অপ্রয়োজনীয় আর অতিমূল্যায়িত জিনিস। আগের অ্যাকাউন্ট তো আর নেই, নতুন অ্যাকাউন্টে এখন আমাকে লক্ষাধিক লোক ফলো করে। লোকে আসলে ব্যক্তিকে ফলো করে না, অর্জনকে ফলো করে। তখন প্রায় আটত্রিশ হাজার ফলোয়ারকে আমার গোটা জীবনের সমান মনে হত, আর এখন লক্ষাধিক ফলোয়ারকেও আমার একটা অলস দুপুরের নির্বিঘ্ন ঘুমের সমানও মনে হয় না। সেসময় আমি নিজেকে পুরোপুরিই নিঃসঙ্গ করে ফেলেছিলাম। নিজেকে নিঃসঙ্গ করে না ফেললে কোনওভাবেই অন্যদের চাইতে বেশি কাজ করা সম্ভব নয়। আমাকে হয়ত অনেকেই রোবট ডেকেছে। কিন্তু আজ আমি বুঝি, আমি ঢাকা ভার্সিটিতে দ্বিতীয়বারেও চান্স না পেলে লোকে আমাকে তার চাইতেও আরও বেশি আজেবাজে কথা বলতে ছাড়ত না। আমি দেখেছি, কোনও কাজের সবচাইতে কঠিন ধাপটা হচ্ছে, শুরু করাটা। শুরু করে দিলে আর নিজেকে ফাঁকি না দিয়ে প্রতিদিনই করে গেলে, কাজটা শেষ হবেই হবে। আমি সেসময় এক ধরনের দ্বৈত সত্তা নিয়ে বাঁচতাম। আমি অন্য যে কাজই করি না কেন, তার পুরোটাই আমার কাছে সময়ের অপচয় মনে হত। আমার মাথায় সারাক্ষণই ঘুরতে থাকত, কখন আমি পড়তে বসব! পড়তে যে খুব শখ করে বসতাম, তা কিন্তু নয়, আমি বুঝে গিয়েছিলাম, বাঁচতে চাইলে আমাকে পড়তে বসতেই হবে! কারণ, আমি জানতাম, আমি আমার স্বপ্ন ছুঁতে না পারলে আমার অন্য সব কাজই অর্থহীন হয়ে যাবে। হাজার বছর লুকিয়ে বাঁচার চাইতে হাজার মিনিট চুটিয়ে বাঁচা অনেক বেশি আনন্দের। তখন পড়তে ইচ্ছে না করলেও টেবিল ছেড়ে উঠে যেতাম না---অন্য যা পড়তে ভাল লাগে, তা-ই পড়তাম। গান শুনতে ইচ্ছে করলে একটু গান শুনে নিতাম। তবে তা ততক্ষণ পর্যন্তই, যতক্ষণ না আমার সাময়িক অনিচ্ছাটা কাটছে। আমার অভিজ্ঞতা বলে, আধাঘণ্টা ইন্সট্রুমেন্টাল শুনলে ক্লান্তি কেটে যাওয়ারই তো কথা! টেবিল ছেড়ে একবার উঠে গেলে নিজেকে আবারও টেবিলে টেনে আনাটা খুব কঠিন কাজ। যতক্ষণ জেগে আছি আর বাথরুমে না যাচ্ছি, ততক্ষণই টেবিলে থাকব---এই টার্গেটেই প্রতিদিন বাঁচতাম। প্রতিদিনই পড়ার টেবিল ছাড়তাম এক ধরনের অতৃপ্তি আর আত্মঅভিযোগ নিয়ে, যাতে করে পরেরদিন আরও বেশি করে নিজেকে খাটিয়ে নিতে পারি। প্রতিভা হয়ত সকলের থাকে না, কিন্তু পরিশ্রম করার ক্ষমতা তো সবারই থাকে! আমি বিশ্বাস করি, যে কেউই ক্রমাগত পরিশ্রমের মাধ্যমে প্রতিভার ঘাটতিকে অতিক্রম করতে পারে। কাজ করে যাওয়াটাই জরুরি, বেঁচে থাকাটা নেহায়েত অপ্রয়োজনীয়। আমি ওই সময় কঠোর পরিশ্রম করতে পারতাম, এবং এর ফলে আমার ভেতর থেকে যতটা বের করে আনা সম্ভব বলে আমি বিশ্বাস করতাম, তার চাইতে অনেক বেশি বের করে আনতে পেরেছি। সময়ের প্রয়োজনে হঠাৎ করেই আমার বিবেকবোধ খুবই তীব্র হয়ে উঠেছিল। ওই সময় আমি এতটাই বেপরোয়া হয়ে গিয়েছিলাম যে, আমি জানতাম, কেউ যদি আমাকে এটা সম্পর্কে নিশ্চিত করেও দিত---যতই পড়ি না কেন, আমি কোথাও চান্স পাব না.........তবু আমি নিরলসভাবে চেষ্টা করে যেতাম। আমি নিজেকে বারবার বলতে থাকতাম---আমি যা করছি, তার শেষ দেখে তবেই ছাড়ব! (অকেজো মানুষের অকেজো গল্প'র কিছু অংশ)

15/03/2018

B.T High School 2017

bekarjibon.com 12/01/2018

পরিশ্রমী ব্যক্তি কখনও ব্যর্থ হয়না, কোন না কোন রাস্তা তার জন্য খুলে যায়: জ্যাক মা - বেকার জীবন

http://www.bekarjibon.com/%e0%a6%aa%e0%a6%b0%e0%a6%bf%e0%a6%b6%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a6%ae%e0%a7%80-%e0%a6%ac%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%95%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a6%bf-%e0%a6%95%e0%a6%96%e0%a6%a8%e0%a6%93-%e0%a6%ac%e0%a7%8d/

bekarjibon.com জ্যাক মা বা মা ইয়ান একজন চাইনিজ উদ্যোক্তা। জনপ্রিয় ই-কমার্স সাইট আলিবাবা ডট কমের ফাউন্ডার। হাজার হাজার তরুন উদ্য�...

05/12/2017

স্বপ্নছোঁয়ার গল্প

..................................
আজ আমি আমার কিছু অনুভূতি আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করব। ৩০তম বিসিএস পরীক্ষার রেজাল্টের জন্য আমরা সবাই বেশ কিছুদিন ধরেই অধীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছিলাম৷ অবশেষে রেজাল্ট বের হল৷ তারিখটা ছিল ২ নভেম্বর৷ সেদিন ছিল আমার জন্মদিন৷ কী অদ্ভুত, তাই না? আনন্দে আমার চোখে পানি এসে গিয়েছিল৷ জীবনে এইবারই প্রথম স্রষ্টার কাছ থেকে অনেক বড় একটা birthday gift পেলাম৷ ব্যাপারটাকে আপনারা স্রেফ মিরাকল কিংবা কাকতালীয়, যা-ই বলুন না কেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে বিশ্বাস করি, Miracles happen when you believe. হ্যাঁ, মিরাকল ঘটে! আমরা অনেকেই জানি, আমাদের সীমাবদ্ধতাগুলো কোথায়৷ অথচ, আমার মনে হয়, আমাদের মধ্যে বেশিরভাগ মানুষই, আমাদের শক্তির জায়গাগুলোকে চিনতে ভুল করি৷ তাই, আমরা সাহস করে বড় কিছু চাইতে পারিনা৷ ব্যাপারটা যে একেবারেই সহজ, তা বলছি না৷ তবে যাঁরা আমার মত মিরাকলে বিশ্বাস করেন এবং মিরাকল ঘটানোর জন্যে কাজ করে যান, তারা মাঝে-মধ্যেই ওরকম অদ্ভুত সুন্দর মুহূর্তগুলোর দেখা পান৷
বিসিএস-এর ব্যাপারে আমার এই passion এবং feeling কিন্তু খুব বেশি দিনের নয়৷ বরং আমার অনেক সহযোদ্ধার তুলনায় আমাকে অনেক কম সময় অপেক্ষা করতে হয়েছে৷ আমার একটা সমস্যা ছিল৷ সমস্যাটা হলো, আমি আসলে কী হতে চাই --- এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে আমার সময় লেগেছে প্রায় ২০ বছর৷ অথচ, সিদ্ধান্ত নেয়ার পর লক্ষ্যে পৌঁছতে সময় আমি সময় নিয়েছি মাত্র এক বছর৷ আমার সেই কষ্টের দিনগুলোর কথা বেশ মনে আছে৷ আমার চিন্তা-ভাবনা, কাজ --- সবকিছুকেই আমি এককেন্দ্রিক করে ফেলেছিলাম ---- আমার স্বপ্নকেন্দ্রিক৷ মাঝেমাঝে নিজের ভেতরটা বিদ্রোহ ঘোষণা করত, বেঁকে বসত; তবু নিজের সাথে যুদ্ধ করেছি সবসময়৷ আমি নিজেকে প্রায়ই বলতাম, If you are not thinking about your dream, you are not thinking at all. আরো বলতাম, If you are not thinking about BCS, you are not thinking at all. হ্যাঁ, এই BCS --ই আমার স্বপ্ন ছিল৷ আমার dream cadre ছিল BCS Customs & Excise. ৩০তম বিসিএস ছিল আমার প্রথম বিসিএস পরীক্ষা --- প্রথম প্রিলিমিনারি, প্রথম লিখিত, প্রথম ভাইভা৷ শুধু তা-ই নয়, এই চাকরিটা আমার জীবনের প্রথম চাকরি৷ ৩০তম বিসিএস-এর ভাইভা ছিল আমার জীবনের প্রথম জব ইন্টারভিউ৷ তাই সবকিছু মিলিয়ে আমি একটু বেশিই excited ! স্বপ্ন ছুঁয়ে ফেললে যেমনটা হয় আর-কি! আমি সবসময়ই আমার স্বপ্নের প্রতি sincere থেকেছি; তাই বোধ হয়, আমার স্বপ্নও শেষ পর্যন্ত আমার প্রতি sincerity দেখিয়েছে৷ স্বপ্ন এবং বাস্তবতার এই যে mutual interaction --- এটা সত্যিই বেশ দারুণ!! আমি এটাকে খুব enjoy করছি; জানি, আপনারাও করবেন৷
যখন আমি CUET থেকে Computer Science & Engineering এ আমার গ্র্যাজুয়েশন শেষ করলাম, আমি তখন বুঝতে পারছিলাম না, সামনের দিনগুলোতে আমি কী করব। আমি ব্যবসা শুরু করেছিলাম৷ খুব ইচ্ছে ছিল, Business Magnet হবো৷ ব্যবসা, বই পড়া, বিভিন্ন blog এবং facebook-এ বন্ধুদের সাথে feelings শেয়ার করা, movie দেখা, গান শোনা --- এসব নিয়েই বেশ ছিলাম৷ এরই মাঝে হঠাৎ মাথায় একটা পুরনো ভূত নতুন করে চাপলো --- লেখক হবো, দার্শনিক হবো৷ ৩০তম বিসিএস পরীক্ষার circular হওয়ার মাত্র কয়েকদিন আগে আমার দুই বন্ধু -- সত্যজিত এবং পলাশের কাছ থেকে BCS সম্পর্কে জানলাম৷ সেইদিন আমার BCS-এ প্রথম হাতেখড়ি৷ আমার এখনও মনে আছে, অনেক ভাল লেগেছিল সেদিন৷ কেন জানি বারবারই মনে হচ্ছিল, আমার স্বপ্নের পালাবদল হওয়ার সময় এসেছে; সাথে অবশ্য লেখক হওয়ার ঝোঁকটাও ছিল৷ Civil Service এ join করলে writer হওয়াটা সহজ হবে --- এমনটা মনে হয়েছিল৷ আমার স্বপ্নযাত্রা শুরু হলো৷ আমার জীবনের ছোট-বড় যেকোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় আমার মা-বাবা এবং ছোট ভাইয়ের সমর্থন পেয়েছি সব সময়। পরিবার পাশে থাকলে মনের জোর অনেকটাই বেড়ে যায়৷ আমি মনে-প্রাণে বিশ্বাস করি, বাবা-মায়ের আশীর্বাদে আমি আমার জীবনের অনেক বড় বাধা পার হয়ে এসেছি এবং সামনেও হবো৷ সাথে ছিল বন্ধুরা, শুভাকাঙ্খীরা৷
আপনাদের মনে হতেই পারে, কীভাবে বিসিএস-এর মতো এত competitive একটা exam-এর বাধা পার হবো! এটা স্বাভাবিক৷ আমারও মনে হতো৷ আমার ভাবনাগুলো সবসময়েই আমার স্বতন্ত্র ছিল। আমি বিশ্বাস করি না যে, অন্য ১০ জনের সাথে আমার ভাবনাগুলো না মিললেই সেগুলো ভুল হয়ে যায়৷ আমি একজন Computer Engineer, এখন MBA পড়ছি Dhaka University-র IBA-তে, MDS পড়ছি Dhaka University-তে৷ আমি সবসময়েই শুনে এসেছি, BCS নিয়ে ভাবনা আমার জন্যে স্রেফ পাগলামি ছাড়া আর কিছু নয়৷ শুনে আমার বেশ ভাল লাগত, জেদ চেপে যেত; কারণ আমি বিশ্বাস করি, আমার পাগলামি আমার জন্যে অনেক বেশি important! আপনার স্বপ্নপূরণে পাগল হতে শিখুন৷ Work hard --- শুধু এই পুরনো slogan নিয়ে বসে থাকার দিন শেষ; এর সাথে এখন যুক্ত হয়েছে Work smartly. হ্যাঁ, আপনাকে smartly পরিশ্রম করতে হবে৷
আপনাদের মধ্যে যাঁরা আমাদের উত্তরসূরি, তাঁদের উদ্দেশ্যে দু’টো গল্প বলছি৷
প্রথম গল্প:
একটা কাক গাছের উঁচু ডালে কোনও কাজ না করে অলসভাবে বসে ছিল৷ ঠিক সে সময়ে ওই পথ দিয়ে এক খরগোশ যাচ্ছিল৷ খরগোশ কাককে জিজ্ঞেস করল, “আচ্ছা ভাই, আমিও কি তোমার মতো কোনও কাজ না করে এই গাছের নীচে বসে থাকতে পারি?” কাক বলল, “নিশ্চয়ই পারো!” খরগোশ তা-ই করল৷
কিছুক্ষণ পর সেই পথ দিয়ে এক শেয়াল যাচ্ছিল৷ শেয়াল খরগোশটাকে বসে থাকতে দেখে খপ্ করে ধরে খেয়ে ফেলল৷
এই গল্পের lesson কি? lesson হলো, যখন আপনি এতটাই উঁচু আসনে বসে আছেন যে, কেউ আপনাকে ছুঁতে পারবে না, তখন আপনি হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকতে পারেন৷ তবে, এর আগে পরিশ্রম করে আপনাকে সেই আসনে বসার যোগ্যতা অর্জন করতে হবে৷ ভাবুন, আপনারা এখন কোন আসনটাতে বসে আছেন৷
দ্বিতীয় গল্প:
শীতের প্রকোপ থেকে বাঁচতে একটা ছোট্ট পাখি সাইবেরিয়া ছেড়ে যাচ্ছিল৷ হঠাৎ পাখিটা জমে গিয়ে বরফের টুকরোর মতন টপ্ করে মাটিতে পড়ে গেল৷ বেশ কিছু সময় পড়ে সেই পথ দিয়ে একটা গরু হেঁটে যাওয়ার সময় পাখিটার উপর মলত্যাগ করল৷ কিছুক্ষণ পর গোবরের উষ্ণতায় পাখির গায়ের সমস্ত বরফ ঝরে গেল৷ পাখিটা তখন খুশিতে গান গাইতে শুরু করল৷ কাছেই একটা বেড়াল বসেছিল৷ গান শুনে বেড়ালটা গোবর থেকে পাখিটাকে বের করে খেয়ে ফেলল৷
এই গল্পের lesson গুলো কী কী?
প্রথম lesson হলো, Not everyone who drops s**t on you is your enemy. এর মানে হল, যারা আমাদের উপরে ময়লা ছিটিয়ে দেয় অর্থাৎ আমাদের বকা-ঝকা করেন, তাদের সবাই কিন্তু আমাদের শত্রু নন; অনেকেই আমাদের ভাল চান৷ এই দলে আছেন, আমাদের বাবা-মা, সিনিয়ররা, স্যাররা৷
দ্বিতীয় lesson হলো, Not everyone who gets you out of s**t is your friend. এর মানে হল, অনেকেই আছেন যাঁরা আমাদের বিপদ থেকে মুক্ত করার কথা বলে হাত বাড়িয়ে দিয়ে আরো বড় বিপদে ফেলে দেন৷ এই দলে আছেন, আমাদের আশে-পাশের সেইসব মহাপণ্ডিত ব্যক্তিরা, যাঁরা বলেন, “বিসিএস পরীক্ষা দিয়ে আর কি হবে? তার চেয়ে অন্য কিছু কর৷” অথবা বলেন, “তোমাকে দিয়ে বিসিএস হবে না৷” আমি মনে করি, If you cannot help a person to do something, you have no right to demoralize him/her saying that he/she cannot do it.
আমার মনে হয়, তৃতীয় lessonটাই সবচেয়ে important. সেটি হলো, When you are in the s**t, always keep your mouth shut!! এর মানে হল, যখন আপনি বিপদে আছেন, তখন সবসময় আপনার মুখ বন্ধ রাখবেন৷ রেজাল্ট বের হওয়ার আগের ১-১.৫ বছর আমি মুখ বন্ধ রেখেছি৷ অনেক কথা জমে গেছে; সেই কথাগুলোই এখন আপনাদের বলছি৷ Success talks the loudest. Success can buy silence. আপনার সাফল্য সবার মুখ বন্ধ করে দিতে পারে৷ তাই, নিজের প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিন; অন্যদের প্রতি নয়৷
Steve Jobs এর একটা চমৎকার পরামর্শ দিয়েছিলেন, Stay Foolish, Stay Hungry. আমিও বলছি, সাফল্য লাভ করার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত বোকা থাকুন, বিসিএস-এর জন্যে ক্ষুধার্ত থাকুন, পড়াশোনা করুন, চোখ-কান খোলা রাখুন; মুখ নয়৷

04/09/2017

কিছু ভাল-খারাপ সৃত্মি দিয়ে শেষ হলো বহু প্রতীক্ষিত
আমাদের বি.টি উচ্চ বিদ্যালয়ের পূণমির্লণী অনুষ্টান ।
আট মাসের কঠোর প্রচেষ্টায় সুষ্টভাবেই সম্পন্ন হলো
এই অনুষ্টান। বৃষ্টিটা না পড়লে হয়তো আরো অনেক
সুন্দর হতো আমাদের এই অনুষ্টান। তবুও বলব আমরা সফলভাবেই অনু্ষ্টান সম্পন্ন করতে পেরেছি ।।
এই অনুষ্টানের মধ্যদিয়ে অনেক জনের সাথে পরিচয়
হয়েছে,বড় ভাই বোন,ছোট ভাই বোনদের সাথে পরিচয়
হয়েছে,পরিচিত কত্তগুলা মুখের সাথেও আবার নতুন ভাবে পরিচয় হয়েছে ।।
ধন্যবাদ পূণমির্লণী অনুষ্টান সম্পন্নকারী কমিটির সব সদস্যদের। বিশেষ করে
#জেমস_দাদা #জিসু
#সুপন_দাদা #সঞ্জয়_দাদা
#মলয়
#রেদুয়ান
#পিয়াল
#ধনায়ে দাদা
#মিল্টন
#অভি_দাদা ।।
আশা করছি, আজকের দিনটি সবার জীবনে স্পেশাল একটা দিন হয়ে থাকবে ।।
দেখা হবে সবার সাথে, আবার কোন এক পূণমির্লণী অনুষ্টানে অথবা ব্যস্তময় জীবনের কোন ক্ষণে ।।
ধন্যবাদ সবাইকে,সবাই ভাল থাকবেন,সুস্থ থাকবেন।

মোঃ ইসমাইল হোসেন রিয়াদ
২০১৩ ব্যাচ।

20/06/2017

সম্মানিত,
বি,টি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক ও ছাত্র/ছাত্রীবৃন্দ অত্যান্ত দুঃখের সহিত জানাচ্ছি যে,ঐতিহ্যের ৩০ বছর পদার্পন উপলক্ষে বি,টি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক,শিক্ষার্থীদের নিয়ে আগামী ২৯ শে জুন ২০১৭ইং পূর্নমিলনী অনুষ্ঠানের নির্ধারিত তারিখ থাকার সত্তেও অনিবার্য কারনঃ- প্রাকৃতিকবিপর্যয়, সার্বিক পরিস্থিতি এবং মাননীয় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে সময় দিতে না পারায় ও মাননীয় চেয়ারম্যান এর সম্মতিক্রমে এবং পূর্ণমিলনী উদযাপন পরিষদের সিদ্ধান্তক্রমে আগামী ঈদ-উল-আযহা (কোরবানি ঈদ) অর্থাৎ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ইং এর প্রথম সপ্তাহে পরবর্তী নির্ধারিত তারিখ fb তে অথবা যারা রেজিস্ট্রেশন সমাপ্ত করেছেন তাদেরকে মোবাইলে সরাসরি জানিয়ে দেয়া হইবে।সাথে যারা রেজিস্ট্রেশন সমাপ্ত করে অনুষ্ঠানে সহযোগীতার হাত বাড়িয়েছেন তাদেরকে ধন্যবাদ এবং যাহারা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করতে আগ্রহী তাহারা রসিদ এর মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করার আহবান জানিয়ে সমাপ্ত করলাম।সবাইকে আবার ও ধন্যবাদ।
নিবেদক
পূর্ণমিলনী উদযাপন পরিষদ-২০১৭ ইংএর
পক্ষে,নামঃজেমস চাকমা( প্রাক্তন ছাত্র)
আহবায়ক,বি,টি উচ্চ বিদ্যালয়।

09/06/2017

সকলের অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে,স্কুলের পুর্ণমিলনী অনুষ্টানের সকল প্রকার কর্মকান্ড, সকল প্রকার দায়িত্ব থেকে আমি নিজেকে অব্যাহতি জানালাম।
সাম্প্রতিক অনাকাঙ্ক্ষিত যে ঘটনাটা আমার সাথে ঘটেছে তার জন্য আমার অনেক ফ্রেন্ড
আমাকে ঘৃণার চোখে দেখতেছে,এমনকি অনেকে বলতেছে আমি উপস্থিত থাকলে এরা
অনুষ্টান বয়কট করবে,সেই সাথে হুমকি ধামকি তো আছেই।
পুর্ণমিলনীর শুরু থেকেই সকল কাজে আমার উপস্থিতি ছিল,অনেক আশা ছিল সবাই একসাথে মজা করব। কিন্তু তাই বলে আমি চাইনা আমার জন্য পুর্ণমিলনী অনুষ্টানের ব্যাঘাত
ঘটুক। যারা আমার উপর নাখোস তাদেরকে বলতেছি আমি অনুষ্টানে অংশগ্রহণ করব না।
প্লিজ আপনারা সবাই পুর্ণমিলনী অনুষ্টান টা সফল করবেন আশা রইল। অনেকের কাছে এই স্ট্যাটাস টা ভাব দেখানোর মতো হতে পারে,তাদের বলছি আমি অনুষ্টানে না আসলে কোন কিছু যায় আসে না,তাই এখানে ভাবের কিছু নাই।
আর আমার কাছে যারা রেজিষ্ট্রেশন করেছেন
তাদের চিন্তা করার কোন কারণ নেই,শীঘ্রই আপনাদের টাকা মুলকমিটিতে দিয়ে দিব।

আমার কর্মকান্ডে কেউ যদি কষ্ট পেয়ে থাকেন তাহলে মাপ করে দিবেন। সিনিয়র জুনিয়র সবার কাছে ক্ষমাপ্রার্থী ।

আশা করি,আপনারা সবাই পুর্ণমিলনীতে উপস্থিত থেকে বি.টি স্কুলে এক গৌরবময় ইতিহাস সৃষ্টি করবেন।

ধন্যবাদ সবাইকে।
মোঃ ইসমাইল হোসেন। (২০১৩ ব্যাচ)

02/05/2017

পুর্ণমিলনীতে অংশগ্রহণের জন্য কে কে রেজিষ্ট্রেশন
করেছেন....??
আর না করে থাকলে কখন করবেন...???

সবাইকে দ্রুত রেজিষ্ট্রেশন করার জন্য অনুরোধ করা গেল।।।

24/04/2017

B.T high school- Baghaichari's cover photo

09/04/2017

কিছুদিন আগে স্কুলের এক ঘনিষ্ট ফ্রেন্ডকে বললাম
আগামী ২৭ শে জুনের পুর্ণমিলনীতে থাকবে কিনা।
তার উত্তর দেখে সত্যিই আমি হতাশ। সে নাকি অনুষ্টানে
থাকবে না,কোন কারণ ছাড়া। এমনকি সে জানেই না
পুর্ণমিলণী অনুষ্টানে কি কি হয়,উপস্থিত থাকলে ভাল
হবে নাকি খারাপ হবে ।
আমাদের অনুষ্টানের রেজিষ্ট্রেশন ফি ৫০০ টাকা নূন্যতম।আর রেজিষ্ট্রেশনের শেষ তারিখ ৩০ শে এপ্রিল।
অনুষ্টানের প্রচারণার জন্য আমরা যা যা দরকার তার ৮০% ইতিমধ্যে করে ফেলেছি।
কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্যি, আজ ৮ এপ্রিল হয়ে
গেলেও আমি জানি না কে কে রেজিষ্ট্রেশন করেছেন।
অথবা রেজিষ্ট্রেশনের দায়িত্বে যারা যারা আছেন তারা কতজন এর রেজিষ্ট্রেশন নিশ্চিত করতে পেরেছেন।
আমি নিজেও এখনো আমার বন্ধুদের থেকে ভাল সাড়া
পাইনি,কার কথা কি আর বলব।

আচ্ছা ভাই,আমরা কার জন্য এত কষ্ট করতেছি,কিসের জন্য এত ব্যানার,পোষ্টার,ফেসবুকে পোষ্ট দিচ্ছি?? আমাদের কি এখানে এক টাকা লাভ হবে,উলটো আমদের লস হচ্ছে। কিন্তু কেন করছি জানেন? শুধুমাত্র
স্কুলকে ভালবাসি বলেই,স্কুলের বন্ধুদের সাথে একদিন
মজা করে কাটানোর জন্যেই,সিনিয়র, জুনিয়র ভাইবোনদের সাথে একদিন মজা করার জন্যেই,প্রিয় শিক্ষকদের সাথে কিছু সময়,কিছু উপদেশ পাওয়ার
জন্যেই এতকিছু করছি। শহরের অনেক অনেক স্কুল আছে যাদের টাকার অভাব নেই,যারা বসে আছে কখন
একটা পুর্ণমিলনী হবে,শুধুমাত্র তাদের কিছু উদ্যোগতার
অভাব। কিন্তু আমাদের তো সেই চিন্তা নেই,সিনিয়র -জুনিয়র কিছু ভাই মিলে তো আমরা এই মহান উদ্যোগ নিয়েই নিছি।
আপনারা শুধু ৫০০ টাকা দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন করে আমাদের অনুষ্টানকে সফল করবেন।
আর এই ৫০০ টাকা তো আমরা একবারে নিয়ে নিচ্ছি নাহ,এই টাকার বিনিময়ে আপনাদের একটা টি-শার্ট,দুপুরের খাবার,নাস্তা,জাঁকজমক ব্যান্ড উপহার দেওয়া হবে। আচ্ছা, সবগুলা বাদ,আপনি কি পারবেন
৫০০ টাকা দিয়ে আপনার পুরনো সব বন্ধু,শিক্ষক, সিনিয়র -জুনিয়র দের সাথে যোগাযোগ করতে, মজা করতে????
এই জিনিসটা চিন্তা করলেই তো হয়,সত্যিই যদি আমাদের স্কুলের প্রতি,বন্ধুদের প্রতি,শিক্ষকদের প্রতি টান থাকত তাহলে এতদিনে ৮০% স্টুডেন্ট রেজিষ্ট্রেশন করে ফেলত,কাউকে হাতে পায়ে ধরতে হতো না।
দুঃখজনক হলেও সত্যি,আমরা আসলেই ক্ষ্যাত,এই মনমানসিকতা থাকলে আজীবন ক্ষ্যাতই থাকব।।

যাই হোক,আমার এখনো বিশ্বাস এই অনুষ্টান টা আমরা সফল করে প্রমাণ করতে পারব আমরা ক্ষ্যাত নই।
আমরাও সবার মতো দেখিয়ে দিতে পারি
ভুল কিছু বলে থাকলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।

মনের রাজ্যোর রাজকুমার Keno Ochena Keno Ochena
Raduan Khan
Maloy Chakma DarkSky D Renty Lx
Miltan Chakma Shuvo
Jems Chakma
Sonjoy D Joy Rumen Changma
সবার কাজের আপডেট চাই,এভাবে বসে থাকলে
আমরা কখনো অনুষ্টান করতে পারব না।

30/03/2017

২০০৪ সালের ব্যাচের বন্ধুরা,ছবিটা দেখে বুকে মোচর কি দেয়না? প্লীজ সবাই আয় একটি দিন একহই। ছোটভাইয়েরা যে উদ্যোগ নিয়েছে সবাই মিলে সেটা সফল করি।।আর আমাদের স্পেশাল কিছু থাকুক।।
কে কোথায় আছিস আওয়াজ দে........ (সন্জয় ২০০৪ ব্যাচ)

24/03/2017

চট্টগ্রামের মির্জাপুর বালক উচ্চ বিদ্যালয় এর পুর্ণমিলণী
হয়ে গেল আজ।
যদিও আমাদের বি.টি উচ্চ বিদ্যালয় ওদের তুলনায় একটু পিছিয়ে, কিন্তু আমরাও তো পারি এরকম
পুর্ণমিলণী অনুষ্টান করতে।
বন্ধুরা,আমরা কি চাই না আমাদের প্রাণের প্রিয়
বি.টি উচ্চ বিদ্যালয়ে একদিনের জন্য সবাই মিলিত হতে?
আমরা কি চাইনা,সিনিয়ের, জুনিয়ার, সহপাঠী দের সাথে সারাদিন মজা করে কাটাতে,নাচতে,গাইতে,ছবি তুলতে??
যদিও আমরাও চাই,যদি আমাদের মনে আমাদের বন্ধুবান্ধব ও স্কুলের জন্য এতটুকু ভালবাসা থাকে,
তাহলে আর দেরি না করে ৫০০ টা রেজিষ্ট্রেশন ফি দিয়ে
যত তাড়াতাড়ি সম্ভব রেজিস্ট্রেশন করে ফেলি।
রেজিস্ট্রেশন এর শেষ তারিখ ৩০ শে এপ্রিল ২০১৭।
অনুষ্টানের তারিখ : ২৭ শে জুন ২০১৭।

দেখা হবে অবশ্যই, পুর্ণমিলনীতে,বি.টি উচ্চ বিদ্যালয়
মাঠ প্রাঙ্গণে।
আমিও যাব,আপনারাও আসুন,বন্ধুদের ও নিয়ে আসুন।

suprobhat.com 28/02/2017

‘শিক্ষার্থী ও অভিভাবকের মধ্যে যোগসূত্র রচনা করেন আদর্শ শিক্ষক’ - Suprobhat Bangladesh

একজন আদর্শ শিক্ষক পারে প্রতিষ্ঠানের সকল শিক্ষর্থীর জীবন পরিবর্তন করতে৷

suprobhat.com শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকের মধ্যে যোগসূত্র রচনা করেন একজন আদর্শ শিক্ষক। যা দীঘিনালা উপজেলার শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক হিসেবে নির্বাচিত হওয়া উত্তর রেংকার্যা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উষাআলো চাকমা তৈরি করতে পেরেছেন। কথাগুলো জানালেন একই বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি বনবিহারী চাকমা। তিনি আরো জানা...

15/02/2017

২৭ শে জুন বি.টি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রথম পুর্ণমিলনী
অনুষ্টানের জন্য আপনি রেজিস্ট্রেশন করেছেন কি??
না করলে অতিশীঘ্রই রেজিস্ট্রেশন করে ফেলুন এবং
অন্যকে উৎসাহিত করুন।
আসুন আমরা একদিনের জন্য আমার সেই স্কুল লাইফে
ফিরে যায়,একসাথে,বি.টি উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিবারের
সাথে।

01/02/2017

শুভ বানী অর্চনা 2k17
Post : Peal Dutta

29/01/2017

সুপন দাদার নেতৃত্বে
পোস্টারিং করার কাজ শুরু করে দিলাম...!!!
সবার ভেতরে সহযোগিতাপূর্ণ মনোভাব রাখার অনুরোধ করলাম...!!!!!!
পোষ্ট: পিয়াল দত্ত

25/01/2017

কারেকশন এর কাজ সম্পন্ন করা হয়ে গেছে.....
এখন ব্যানারগুলো টানানোর কাজ বাকী...
সহযোগীতার প্রয়োজন বেশ কয়েকজনের...!!!!!
অংশগ্রহনের জন্য যোগাযোগ করুন :
মাতৃভান্ডার কম্পিউটার এন্ড ডিজিটাল স্টুডিও
এটা আপনার আমার সবার কাজ দায়িত্ব সবার।।।।

23/01/2017

আমাদের প্রানের বিদ্যালয়ে আমরা সবাই আবার মিলিত হবো...একত্রিত হবো সব বন্ধুরা,,,নাচবো আর গাইবো সবাই একই সুরে.......!!!!!
২৭ ই জুনের জন্য তৈরি হয়ে নেওয়ার আগে..
আজই আপনার রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করে নিন....!!!!!
পোষ্ট : Peal Dutta

11/01/2017

শুভ শীতের সকাল

10/01/2017

#ব্যানার....

09/01/2017

পোষ্টার ১০০০ কপি এর ডিজাইন..হাতে ২ দিন সময় দিলাম কারেকশন থাকলে দিতে পারো.....!!!
বি. দ্র : আগের ৩০ জুন তারিখটি ভুল ছিল ক্যালেন্ডার এর সময় মতে..
এই তারিখটা কনফার্ম, ১০০% সত্য
পোষ্ট: Peal Dutta

06/01/2017

#চলছে_আলোচনা_সভা

05/01/2017

অনুষ্টানের আমেজ ছড়িয়ে দিতে প্রস্তুত ......

04/01/2017

Want your school to be the top-listed School/college in Rangamati?

Click here to claim your Sponsored Listing.

Location

Category

Address


Baghaichari
Rangamati
4590
Other Schools in Rangamati (show all)
Naniarchar Punarbasan Govt.Primary School Naniarchar Punarbasan Govt.Primary School
Islampur, Naniarchar
Rangamati, 4520

নানিয়ারচর পুনর্বাসন সরকারি প্রাথমিক

Ghagra high school-Online school Ghagra high school-Online school
Rangamati, 4500

its a institute of secendary level school educational institution

HKN City Zone School HKN City Zone School
Reserve Bazaar, Main Road
Rangamati, 4500

সবার প্রিয় ও সাধ্যের মধ্যে উপযুক্ত ও স

BTSD - Technical Skill Development Of Bangladesh BTSD - Technical Skill Development Of Bangladesh
Sufi Market (1st Floor), Banurupa
Rangamati, 4500

Approved by Govt of The People's Republic of Bangladesh BTSD

Biplob official Biplob official
Rangamati
Rangamati, 4550

Hi welcome my Educational Page. Freelancing Academy Coures provide. our Courses 1. Digital Marketin

Shahid Abdul Ali Academy Shahid Abdul Ali Academy
Reserve Bazar
Rangamati, 4500

এখানে শুধুমাত্র বিষয়ভিত্তিক পোস্ট কর

Kids Explorer School Kids Explorer School
Rangamati, 4500

It's a page created to post study content for the studentof Kids Explorer School. Rangamati(sadar),

Rangamati Govt. High School Rangamati Govt. High School
Rangamati
Rangamati, 4500

Rangamati Government High School (RGHS) is the first high school in the Chittagong Hill Tracts in

Bangladesh Sweden Polytechnic Institute Bangladesh Sweden Polytechnic Institute
Kaptai, Rangamati Hill Tracts
Rangamati, 4533

It's an non official page! This is one of the best public polytechnic institute in Bangladesh.. f

Rangamati Govt. Girls' High School "রাঙ্গামাটি সরকা Rangamati Govt. Girls' High School "রাঙ্গামাটি সরকা
Beside Kotwali Thana, Tabalchari Bazar
Rangamati, 4500

রাঙ্গামাটি সরকারি বালিকা বিদ্যালয়টি

Rajasthali TaitongPara Govt.High School Fan Club Rajasthali TaitongPara Govt.High School Fan Club
Rangamati

স্কুলের সকল তথ্য পেতে Website: rtpghs.edu.bd Email : rtpghs@g

Rangamati Govt. Mohila College Rangamati Govt. Mohila College
Rangamati

https://www.youtube.com/channel/UCYEyC-qM7RhekKUpI2Dbeig