Islamic Knowledge

Contact information, map and directions, contact form, opening hours, services, ratings, photos, videos and announcements from Islamic Knowledge, Education Website, Sylhet, Sylhet.

25/04/2020

✍ কুর'আন থেকে দু'আ #৩

رَبَّنَا آتِنَا فِي الدُّنْيَا حَسَنَةً وَفِي الآخِرَةِ حَسَنَةً وَقِنَا عَذَابَ النَّارِ
'Rabbana atina fid-dunya hasanatan wa fil 'akhirati hasanatan waqina adhaban-nar'

Our Lord! Grant us good in this world and good in the hereafter, and save us from the chastisement of the fire [2:201]

হে পরওয়ারদেগার! আমাদিগকে দুনয়াতেও কল্যাণ দান করো এবং আখেরাতেও কল্যাণ দান করো এবং আমাদিগকে দোযখের আযাব থেকে রক্ষা করো। (২:২০১)

25/04/2020

✍ প্রশ্নঃ কোন নবীর নাম পবিত্র কুরআনে সবচেয়ে বেশী সংখ্যায় উল্লেখ হয়েছে?

👉 উত্তরঃ মূসা (আঃ)

25/04/2020

কুরআনে বর্ণিত ২৫ জন নবীর নাম:

আদম, নূহ, ইদরীস, হূদ, ছালেহ, ইবরাহীম, লূত্ব, ইসমাঈল, ইসহাক্ব, ইয়াকূব, ইউসুফ, আইয়ূব, শু‘আয়েব, মূসা, হারূণ, ইউনুস, দাঊদ, সুলায়মান, ইলিয়াস, আল-ইয়াসা‘, যুল-কিফ্ল, যাকারিয়া, ইয়াহ্ইয়া, ঈসা (আঃ) ও মুহাম্মাদ (ছাঃ)। (ইবনু কাছীর, তাফসীর নিসা ২৬৪) এঁদের মধ্যে""ইবরাহীম-পূর্ব সকল নবী আদম ও নূহের বংশধর এবং ইবরাহীম-পরবর্তী সকল নবী ও রাসূল ইবরাহীম (আঃ)-এর বংশধর। উল্লেখ্য যে, সূরা তওবা ৩০ আয়াতে ওযায়ের-এর নাম, এলেও তিনি নবী ছিলেন না। বরং একজন সৎকর্মশীল ব্যক্তি ছিলেন। কুরতুবী বলেন, অত্যাচারী খৃষ্টান রাজা বুখতানছরের""ভয়ে যখন ফিলিস্তীনের ইহুদীরা সবাই তওরাত মাটিতে পুঁতে ফেলে এবং তওরাত ভুলে যায়, তখন ওযায়ের তওরাত মুখস্ত করে সবাইকে শুনান। তাতে অনেকে এটাকে অলৌকিকভাবে তাকে ‘ইবনুল্লাহ’ বা আল্লাহর বেটা বলতে থাকে। ইবনু কাছীর ও সুদ্দী প্রমুখের বরাতে কাছাকাছি একইরূপ বর্ণনা""করেছেন।

24/04/2020

❤ Al Asmaa Wal Husnaa - The Names of Allah Ta'ala ❤

24/04/2020

❤Ramadan Mubarak❤

24/04/2020
24/04/2020

"আমি অবাক হই, কিভাবে তোমরা অন্যদের দোষ ত্রুটি নিয়ে গভীর চিন্তায় মগ্ন থাকো, অথচ নিজেদের কথা ভুলে যাও!"

— ইমাম ইবনুল জাওযী (রহ.)

24/04/2020

‎﷽‎

Al Asmaa Wal Husnaa - The Names of Allah Ta'ala

Allah (الله) The Greatest Name

আল্লাহ

আল্লাহ নামটি ইলাহ থেকে এসেছে আর ইলাহ শব্দের মূল লাহ। লাহ বিস্ময় প্রকাশক শব্দ।
বিশ্বের সৃষ্টিকর্তার যথার্থ নাম আল্লাহ, যার সম্পর্কে বিস্ময় ছাড়া আর কিছুই প্রকাশ করতে পারি না।

ইয়া আল্লাহ : দৈনিক ১০০০ বার ইয়া আল্লাহ পাঠ করলে ঈমান পরিপক্ব হয়। জুমার নামাজের পূর্বে ২০০ বার ইয়া আল্লাহ পড়লে দুঃখ - দুর্দশা দূর হয়।

24/04/2020

✍ প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের সর্বপ্রথম কোন সূরাটি পূর্ণাঙ্গরূপে নাযিল হয়?

👉 উত্তরঃ সূরা ফাতিহা

23/04/2020

Tasbeeh

রমাদানের ২৪ ঘণ্টার রুটিন:

ইনশাআল্লাহ্ এই রুটিনটি আমাদের জন্য ভারসাম্যপূর্ণ হবে এবং মানতে সহজ হবে।

২:৪৫—৩:০০ ঘুম থেকে জাগা ও অযু-ইস্তিঞ্জা সম্পন্ন করে নামাজের প্রস্তুতি গ্রহণ করা।

৩:০০—৩:২৫ তাহিয়্যাতুল উযু ও তাহাজ্জুদের নামাজ (২৫ মিনিট) তাহাজ্জুদের নামাজ সর্বনিম্ন ২ রাকাত থেকে সর্বোচ্চ ১২ রাকাত পর্যন্ত পড়াই উত্তম। তবে, এর বেশি পড়াও জায়েয।

৩:২৫—৩:৩৫ আন্তরিকভাবে ইস্তিগফার ও দু‘আ করা (১০ মিনিট)। শেষ রাতের ইস্তিগফার ও দু‘আ আল্লাহ খুব পছন্দ করেন। যাদের খাবার খেতে সময় কম লাগে, তারা দু‘আয় আরো কিছু সময় যোগ করতে পারেন।

৩:৩৫—৪:০০ সাহরি খাওয়া (২৫ মিনিট)

৪:০০—৪:৩০ অযু-ইস্তিঞ্জা সম্পন্ন করা ও ফজরের সলাত আদায় করা।

খুব ভালো হয়—যদি ফজরের পর থেকে সূর্যোদয় পর্যন্ত সজাগ থেকে, যিকির ও তিলাওয়াত করে, শেষে ইশরাকের নামাজ পড়ে ঘুমানো যায়। সেই হিসেবে—

৪:৩০—৫:৫০ সকালের মাসনুন যিকর, তিলাওয়াত ও ইশরাকের নামাজ।

[আর যারা ঘুমিয়ে যাবেন, তারা সকালের মাসনুন যিকরগুলো করে পাঁচটার মধ্যে ঘুমিয়ে যেতে পারেন এবং ৮:০০/৮:৩০-এ জাগবেন এরপর চাশতের নামাজ পড়বেন।]

৬:০০—৯:০০ ঘুম (তিন ঘণ্টা)

যারা জব করেন, তারা কাজে যাবেন। যারা সম্পূর্ণ ফ্রি থাকবেন, তাদের জন্য—

৯:০০—১১:০০ কুরআন তিলাওয়াত (ইস্তিঞ্জা সেরে অযু করে প্রস্তুতি নিতে নিতেই চলে যাবে আধা ঘণ্টা।)

১১:০০—১২:৩০ বাসার যাবতীয় কাজ করা, বাচ্চাকে সময় দেওয়া, নিজের কোনো অ্যাকাডেমিক/চাকরির পড়ালেখা থাকলে করা।

১২:৩০—১২:৫০ গোসল সম্পন্ন করা। (যারা ৯-টায় ঘুম থেকে জেগেই গোসল করতে চান, তারা সেভাবেই সময় সেট করে নিন।)

১২:৫০—১:৩০ যোহরের সলাত ও মাসনূন দু‘আ ও যিকরগুলো সম্পন্ন করা।

১:৩০—৩:৩০ অর্থসহ কুরআন পাঠ, তাফসির, হাদিস অথবা দ্বীনি কোনো কিতাবাদি অধ্যয়ন করা। যারা এখনো সহিহভাবে কুরআন পড়তে পারেন না, তারা অবশ্যই শিখে নিবেন। তাছাড়া এসব আমল করতে করতে ক্লান্তি আসলে, মোবাইলে তিলাওয়াত অথবা দ্বীনি কোনো লেকচার/বয়ান শুনা যেতে পারে।

৩:৩০—৪:৩০ ঘুম (দুপুরের হালকা ঘুম সুন্নাহ, একে হাদিসে বলা হয়েছে কাইলুলাহ)

৪:৩০—৫:১০ অযু-ইস্তিঞ্জা সম্পন্ন করা, আসরের সলাত ও মাসনূন যিকরগুলো করা।

৫:১০—ইফতার পর্যন্ত
আসরের পরের সময়টাতে শরবত বানানো ও ইফতার তৈরিতে সাহায্য করা। ইফতারের আগ মুহূর্তে দু‘আ করা। (ইফতারের আয়োজন কম ও সহজ হলে আসরের পর ৩০ মিনিট কুরআন-হাদিসের তালিম হতে পারে—পরিবারের সব সদস্যকে নিয়ে। অথবা সম্মিলিত কোনো দ্বীনি আলোচনা। এরপর ইফতারের প্রস্তুতি ও সর্বশেষ ইফতারের পূর্বে দু‘আ।)

[বিকাল বা সন্ধ্যার যিকরগুলো আসরের পর অথবা মাগরিবের পর পড়তে পারেন। দুটোর পক্ষেই সহিহ দলিল আছে এবং আলেমগণের মতামত রয়েছে।]

৭:০০—৮:০০ সম্পূর্ণ বিশ্রামের সময়। এসময় আত্মীয়দের খোঁজ নেওয়া বা অনলাইনে কিছু সময় দেওয়া যেতে পারে। এরপর ইস্তিঞ্জা ও অযু সেরে প্রস্তুত হওয়া।

৮:০০—১০:০০ ইশা ও তারাবির সলাত আদায় করা (সলাতে যত বেশি সময় দেওয়া যায়, তত ভালো। আমরা অ্যাভারেজ একটি হিসাব ধরেছি, যা খুব বেশি নয় আবার খুব কমও নয়।)

১০:০০—১০:৩০ রাতের হালকা খাবার (যদি প্রয়োজন হয়) অথবা বিশ্রাম/অনলাইন; অতঃপর ঘুমের প্রস্তুতি। নামাজের আগে খেয়ে নিলে তারাবি পড়তে কষ্ট হয়। তবে, যার যেভাবে সুবিধা হয়, সেভাবেই করবেন।

১০:৩০—২:৪৫ রাতের ঘুম (৪ ঘণ্টা)

[হোম কোয়ারেন্টিনে অবসরে থাকা ব্যক্তিদের জন্য এই রুটিন অনুসরণ করা সহজ হলেও আমাদের মা-বোনদের জন্য এই রুটিন মেনে চলা অসম্ভব। কারণ রান্নাঘরেই তাঁদের রামাদান চলে যায়। আল্লাহ্ তাঁদের মাফ করুন এবং তাঁদের উপর সন্তুষ্ট থাকুন। আমরা কেবল তাঁদের উপযোগী করে আরেকটি রুটিন দিব ইনশাআল্লাহ্।]

আরেকটি কথা: ঘড়ি ধরে রুটিন অনুসরণ করা কারো পক্ষেই সম্ভব নয়। তাছাড়া সবার রুটিন সমান হবে, এমন আশা করাও উচিত নয়। সবাই নিজেদের ফেভার থেকে এই রুটিন এদিক-সেদিক করে নিবেন। রামাদানের ইবাদত করুন স্বচ্ছন্দে; আগ্রহ নিয়ে; ভালোবাসার সাথে। নিজের উপর প্রেশার নিয়ে ইবাদত-বন্দেগীকে বিরক্তির পর্যায়ে নেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। তাহলে শেষমেষ কিছুই হবে না। আল্লাহ্ আমাদের তাওফিক দান করুন। সাহায্যকারী ও তাওফিকদাতা একমাত্র তিনিই।

[রমাদানকে অর্থবহ করার ১৩ টি উপায় নিয়ে লেখা আমাদের পূর্বের পোস্টটিও পড়ে নিতে পারেন। লিংক কমেন্টে]

23/04/2020

✍ কুর'আন থেকে দু'আ #২

رَبَّنَا وَاجْعَلْنَا مُسْلِمَيْنِ لَكَ وَمِن ذُرِّيَّتِنَا أُمَّةً مُّسْلِمَةً لَّكَ وَأَرِنَا مَنَاسِكَنَا وَتُبْ عَلَيْنَآ إِنَّكَ أَنتَ التَّوَّابُ الرَّحِيمُ

'Rabbana wa-j'alna Muslimayni laka ma min Dhurriyatina 'Ummatan Muslimatan laka wa 'Arina Manasikana wa tub 'alayna 'innaka 'antat-Tawwabu-Raheem'

Our Lord! Make of us Muslims, bowing to Thy (Will), and of our progeny a people Muslim, bowing to Thy (will); and show us our place for the celebration of (due) rites; and turn unto us (in Mercy); for Thou art the Oft-Returning, Most Merciful [2:128]

পরওয়ারদেগার! আমাদের উভয়কে তোমার আজ্ঞাবহ কর এবং আমাদের বংশধর থেকেও একটি অনুগত দল সৃষ্টি কর, আমাদের হজ্বের রীতিনীতি বলে দাও এবং আমাদের ক্ষমা কর। নিশ্চয় তুমি তওবা কবুলকারী, অতিশয় দয়ালু। (২: ১২৮)

23/04/2020

Tasbeeh

এবারের রামাদান হোক জীবনের শ্রেষ্ঠ রামাদান—১৩ টি কাজের মাধ্যমে আসন্ন রমাদানকে অর্থবহ করুন—ইনশাআল্লাহ্।

১. প্রতিদিন ন্যূনতম ৪ রাকাত তাহাজ্জুদের নামাজ পড়া ও কিছু সময় আন্তরিকভাবে দু‘আয় কাটানো। শেষ রাতের দু‘আ ও ইস্তিগফার আল্লাহর ভীষণ পছন্দ।

২. সারা মাসে কমপক্ষে কুরআনের একটি খতম পরিপূর্ণ করা। রাতের বেলা কিছু সময় তিলাওয়াত করা। রাতের তিলাওয়াতের মর্যাদা অনেক বেশি।

৩. পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আওয়াল ওয়াক্তে (ওয়াক্তের শুরুতেই) পূর্ণ আন্তরিকতার সাথে আদায় করা। ধীরে-সুস্থে তারাবির সলাত আদায় করা। বাসার নারীদেরও জামাতে শরিক করানো। (তাঁদের কাতার হবে সবার শেষে)

৪. গুনাহ থেকে বাঁচা: বিশরষত রোযা অবস্থায় চোখ, কান এবং জিহ্বা দিয়ে কোনো ছোট গুনাহও না করা। যথাসাধ্য অনলাইন থেকে দূরে থাকা। টিভিতে ইসলামি অনুষ্ঠানগুলো দেখা যাবে। তবে, এর বেশি কিছু না। মনের সংকীর্ণতা দূর করে উদারচিত্তে সবাইকে ক্ষমা করে দেওয়া। বিনিময়ে আল্লাহ আমাদের ক্ষমা করে দিবেন। কুরআন ও হাদিসে এই ওয়াদা আছে।

৫. সারা মাসে অন্তত একবার সকল আত্মীয়ের কাছে ফোন করে তাদের খোঁজ নেওয়া। আত্মীয়তার বন্ধন রক্ষা করা সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ ফরজের একটি।

৬. প্রতিদিন অন্তত তিন ঘণ্টা সময় কুরআনের তিলাওয়াত, হিফয, অর্থ ও তাফসির পাঠে ব্যায় করা। সম্ভব হলে সম্মিলিতভাবেও এই কাজটি করা যায়।

৭. সাধ্যানুযায়ী পুরো মাস জুড়ে অসহায় ও দরিদ্রদের দান-সদাকাহ্ করা। এক্ষেত্রে নিজ আত্মীয়দের প্রাধান্য দেওয়া। এটিই ইসলামের নির্দেশনা।

৮. রামাদানের শেষ দশ দিনে (ও রাতে) ইবাদাতের জন্য কোমর বেঁধে নামা এবং লাইলাতুল কদর তালাশ করা; শুধু ২৭ তম রাত্রিতেই নয়।

৯. সাহরি ও ইফতারে খাবারের অপচয় না করা এবং খাবার নিয়ে অতিরিক্ত চিন্তা, কথা-বার্তা ও হৈ-হুল্লোড় না করা। খাবার তৈরিতে বাসার মা-বোনদের যথাসাধ্য সহযোগিতা করা ও কোনো খাবার পছন্দ না হলে মেজাজ না হারানো।

১০. নামাজের পর, সকাল-সন্ধ্যায় ও ঘুমের সময়ের মাসনুন যিকরগুলো গুরুত্বের সাথে পড়া। চাশতের নামাজে অভ্যস্ত হওয়া।

১১. সারা মাস তাওবাহ্ এবং ইস্তিগফারে লেগে থাকা। সাহরি ও ইফতারের সময়ে কিছুক্ষণ দু‘আ করা। এ দুটো সময়ে দু‘আ কবুল হয়। জেনে রাখবেন, রামাদানে মুমিনের প্রধান টার্গেটই হলো, নিজের গুনাহ মাফ করানো।

১২. গিবত, গান শোনা, নাটক-মুভি দেখা, পর্নোগ্রাফি, কুদৃষ্টি, কুধারণা, হিংসা, অহংকার এসব গুনাহ্ যারা ছাড়তে পারছেন না, বরং এগুলো জীবনের সাথে মিশে গেছে ও অভ্যাসে পরিণত হয়েছে, তারা রামাদানের দীর্ঘ এক মাসের কঠিন প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নিজেদের সংশোধন করে নিতে পারেন। যারা অনলাইনে গেইম খেলায় আসক্ত তারাও নিজেদের ঝালাই করে নিতে পারেন।

১৩. আমরা এক ভয়াবহ দুর্যোগের মধ্যে আছি। কেউ জানি না, তাকদিরে কী আছে। সুতরাং এই রামাদানই হতে পারে আমাদের অনেকের জীবনের শেষ রামাদান। সেটি মাথায় রেখে হাসি-ঠাট্টা, ফূর্তিবাজি ও গতানুগতিক উদ্দেশ্যহীন জীবনযাপন বাদ দিয়ে যথাসাধ্য তাকওয়া, বিনয় ও গাম্ভীর্যের সাথে এমনভাবে এই রামাদান কাটানো, যেন সবাই মৃত্যুপথযাত্রী।

মহান রব আমাদের এই তেরোটি কাজ সঠিকভাবে করার তাওফিক দিন, আমাদের গুনাহগুলো ক্ষমা করুন এবং তাঁর সন্তুষ্টির সাথে কবরবাসী করুন।

[আজ রাতে রমাদানের ২৪ ঘণ্টার একটি ভারসাম্যপূর্ণ রুটিন পোস্ট করা হবে ইনশাআল্লাহ্। আশা করি, উপকৃত হবেন।]

23/04/2020

✍ প্রশ্নঃ কে আবু জাহেলের শিরোচ্ছেদ করে?

👉 উত্তরঃ আবদুল্লাহ বিন মাসউদ (রাঃ)

22/04/2020

✍ কুর'আন থেকে দু'আ #১

رَبَّنَا تَقَبَّلْ مِنَّا إِنَّكَ أَنتَ السَّمِيعُ الْعَلِيمُ

'Rabbana taqabbal minna innaka antas Sameeaul Aleem'

Our Lord! Accept (this service) from us: For Thou art the All-Hearing, the All-knowing [2:127]

পরওয়ারদেগার! আমাদের থেকে কবুল কর। নিশ্চয়ই তুমি শ্রবণকারী, সর্বজ্ঞ। (২: ১২৭)

22/04/2020

✍ প্রশ্নঃ নবীজী সর্বশেষ কোন যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন?

👉 উত্তরঃ তাবুক যুদ্ধ। ৯ম হিজরী

21/04/2020

✍ মুসিবতে পতিত ব্যক্তির দো‘আ

إِنَّا لِلّٰهِ وَإِنَّا إِلَيْهِ رَاجِعُوْنَ، اللّٰهُمَّ أْجُرْنِيْ فِيْ مُصِيْبَتِي، وَأَخْلِفْ لِيْ خَيْرًا مِنْهَا

আমরা তো আল্লাহ্রই। আর নিশ্চয় আমরা তাঁর দিকেই প্রত্যাবর্তনকারী। হে আল্লাহ! আমাকে আমার বিপদে সওয়াব দিন এবং আমার জন্য তার চেয়েও উত্তম কিছু স্থলাভিষিক্ত করে দিন।

ইন্না লিল্লা-হি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজি‘উন। আল্লা-হুম্মা আজুরনী ফী মুসীবাতী ওয়াখলুফ লী খাইরাম মিনহা

মুসলিম ২/৬৩২, নং ৯১৮।

21/04/2020

✍ প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন সূরাটি ওমর (রাঃ)এর ইসলাম গ্রহণের কারণ ছিল?

👉 উত্তরঃ সূরা ত্বাহা

20/04/2020

✍ নামাযে সালাম ফিরানোর আগে বা নামাজ শেষ করার আগে পড়ার দোয়া : (1)

• ﺍﻟﻠَّﻬُــﻢَّ ﺇِﻧِّﻲ ﺃَﻋُﻮﺫُ ﺑِﻚَ ﻣِﻦْ ﻋَﺬَﺍﺏِ ﺍﻟْﻘَﺒْﺮِ، ﻭَﻣِﻦْ ﻋَﺬَﺍﺏِ
ﺟَﻬَﻨَّﻢَ، ﻭَﻣِﻦْ ﻓِﺘْﻨَﺔِ ﺍﻟْﻤَﺤْﻴَﺎ ﻭَﺍﻟْﻤَﻤَﺎﺕِ، ﻭَﻣِﻦْ ﺷَﺮِّ ﻓِﺘْﻨَﺔِ ﺍﻟْﻤَﺴِﻴﺢِ
ﺍﻟﺪَّﺟَّﺎﻝِ
আল্লা-হুম্মা ইন্নী আ‘ঊযু বিকা মিন ‘আযা-বিল ক্বাবরি ওয়া মিন ‘আযা-বি জাহান্নামা, ওয়া মিন
ফিতনাতিল মাহ্ইয়া ওয়াল মামা- তি, ওয়া মিন শাররি ফিতনাতিল মাসীহিদ দাজ্জা-ল।

অর্থ- “হে আল্লাহ! আমি আপনার কাছে আশ্রয় চাচ্ছি কবরের আযাব থেকে, জাহান্নামের আযাব থেকে, জীবন-মৃত্যুর ফিতনা থেকে এবং মাসীহ দাজ্জালের ফিতনার অনিষ্টতা থেকে”।

20/04/2020

✍ প্রশ্নঃ কোন সাহাবীকে বলা হত জীবন্ত শহীদ?

👉 উত্তরঃ ত্বলহা বিন উবাইদুল্লাহ (রাঃ)

19/04/2020

✍ অসুস্থতার জন্য সুন্নাহ সম্মত দুয়া-আমল: (3)
ﻭَﻋَﻦْ ﺃَﻧَﺲٍ ﺭﺿﻲ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻨﻪ ﺃَﻧَّﻪُ ﻗَﺎﻝَ ﻟِﺜَﺎﺑِﺖٍ ﺭَﺣِﻤَﻪُ ﺍﻟﻠﻪُ : ﺃَﻻَ ﺃَﺭْﻗِﻴﻚَ ﺑِﺮُﻗْﻴَﺔِ

ﺭَﺳُﻮﻝِ ﺍﻟﻠﻪِ ﷺ ؟ ﻗَﺎﻝَ : ﺑَﻠَﻰ، ﻗَﺎﻝَ : ‏« ﺍَﻟﻠﻬﻢ ﺭَﺏَّ ﺍﻟﻨَّﺎﺱِ، ﻣُﺬْﻫِﺐَ ﺍﻟﺒَﺄﺱِ،

ﺍِﺷْﻒِ ﺃَﻧْﺖَ ﺍﻟﺸَّﺎﻓِﻲ، ﻻَ ﺷَﺎﻓِﻲَ ﺇِﻻَّ ﺃﻧْﺖَ، ﺷِﻔَﺎﺀً ﻻَ ﻳُﻐَﺎﺩِﺭُ ﺳَﻘَﻤﺎً ‏». ﺭﻭﺍﻩ

ﺍﻟﺒﺨﺎﺭﻱ

আনাস রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি সাবেত (রাহিমাহুল্লাহ)কে বললেন, ‘আমি কি তোমাকে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর মন্ত্র দ্বারা ঝাড়ফুঁক করব না?’ সাবেত বললেন, ‘অবশ্যই।’ আনাস রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু এই দো‘আ পড়লেন, ‘‘আল্লাহুম্মা রাববান্না-স, মুযহিবাল বা’স, ইশফি আন্তাশ শা-ফী, লা শা- ফিয়া ইল্লা আন্ত্, শিফা-আল লা য়্যুগা- দিরু সাক্বামা।’’

অর্থাৎ হে আল্লাহ! মানুষের প্রতিপালক! তুমি কষ্ট দূর কর এবং আরোগ্য দান কর। (যেহেতু) তুমি রোগ আরোগ্যকারী। তুমি ছাড়া আরোগ্যকারী আর কেউ নেই। তুমি এমনভাবে রোগ নিরাময় কর, যেন তা রোগকে নির্মূল করে দেয়। (বুখারী)

19/04/2020

✍ প্রশ্নঃ হজ্জের রুকন কয়টি ও কি কি?

👉 উত্তরঃ ৪টি। ইহরাম, তওয়াফ, সাঈ, আরাফাতে অবস্থান।

18/04/2020

✍ অসুস্থতার জন্য সুন্নাহ সম্মত দুয়া-আমল : (2)

• ﻭَﻋَﻦْ ﺃَﻧَﺲٍ ﺭﺿﻲ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻨﻪ ﺃَﻧَّﻪُ ﻗَﺎﻝَ ﻟِﺜَﺎﺑِﺖٍ ﺭَﺣِﻤَﻪُ ﺍﻟﻠﻪُ : ﺃَﻻَ ﺃَﺭْﻗِﻴﻚَ ﺑِﺮُﻗْﻴَﺔِ
ﺭَﺳُﻮﻝِ ﺍﻟﻠﻪِ ﷺ ؟ ﻗَﺎﻝَ : ﺑَﻠَﻰ، ﻗَﺎﻝَ : ‏« ﺍَﻟﻠﻬﻢ ﺭَﺏَّ ﺍﻟﻨَّﺎﺱِ، ﻣُﺬْﻫِﺐَ ﺍﻟﺒَﺄﺱِ،
ﺍِﺷْﻒِ ﺃَﻧْﺖَ ﺍﻟﺸَّﺎﻓِﻲ، ﻻَ ﺷَﺎﻓِﻲَ ﺇِﻻَّ ﺃﻧْﺖَ، ﺷِﻔَﺎﺀً ﻻَ ﻳُﻐَﺎﺩِﺭُ ﺳَﻘَﻤﺎً ‏». ﺭﻭﺍﻩ
ﺍﻟﺒﺨﺎﺭﻱ
আনাস রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি সাবেত (রাহিমাহুল্লাহ)কে বললেন, ‘আমি কি তোমাকে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর মন্ত্র দ্বারা ঝাড়ফুঁক করব না?’ সাবেত বললেন, ‘অবশ্যই।’ আনাস রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু এই দো‘আ পড়লেন, ‘‘আল্লাহুম্মা রাববান্না-স, মুযহিবাল বা’স, ইশফি আন্তাশ শা-ফী, লা শা- ফিয়া ইল্লা আন্ত্, শিফা-আল লা য়্যুগা- দিরু সাক্বামা।’’
অর্থাৎ হে আল্লাহ! মানুষের প্রতিপালক! তুমি কষ্ট দূর কর এবং আরোগ্য দান কর। (যেহেতু) তুমি রোগ আরোগ্যকারী। তুমি ছাড়া আরোগ্যকারী আর কেউ নেই। তুমি এমনভাবে রোগ নিরাময় কর, যেন তা রোগকে নির্মূল করে দেয়। (বুখারী)

18/04/2020

✍ প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন্ সূরাটি পাঠ করলে কবরের আযাব থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে?

👉 উত্তরঃ সূরা মুলক। (৬৭নং সূরা)

17/04/2020

✍ অসুস্থতার জন্য সুন্নাহ সম্মত দুয়া-আমল : (1)

• ﻋَﻦْ ﻋَﺎﺋِﺸَﺔَ ﺭَﺿِﻲَ ﺍﻟﻠﻪُ ﻋَﻨﻬَﺎ : ﺃﻥَّ ﺍﻟﻨَّﺒﻲَّ ﷺ، ﻛَﺎﻥَ ﺇِﺫَﺍ ﺍﺷْﺘَﻜَﻰ ﺍﻹﻧْﺴَﺎﻥُ
ﺍﻟﺸَّﻲْﺀَ ﻣِﻨْﻪُ، ﺃَﻭْ ﻛَﺎﻧَﺖْ ﺑِﻪِ ﻗَﺮْﺣَﺔٌ ﺃَﻭْ ﺟُﺮْﺡٌ، ﻗَﺎﻝَ ﺍﻟﻨَّﺒﻲُّ ﷺ ﺑِﺄُﺻْﺒُﻌِﻪِ ﻫﻜَﺬﺍ –
ﻭَﻭَﺿَﻊَ ﺳُﻔْﻴَﺎﻥُ ﺑْﻦُ ﻋُﻴَﻴْﻨَﺔ ﺍﻟﺮَّﺍﻭﻱ ﺳَﺒَّﺎﺑَﺘَﻪُ ﺑِﺎﻷَﺭْﺽِ ﺛُﻢَّ ﺭَﻓَﻌَﻬﺎ- ﻭَﻗَﺎﻝَ : ‏« ﺑِﺴﻢِ
ﺍﻟﻠﻪِ، ﺗُﺮْﺑَﺔُ ﺃﺭْﺿِﻨَﺎ، ﺑِﺮِﻳﻘَﺔِ ﺑَﻌْﻀِﻨَﺎ، ﻳُﺸْﻔَﻰ ﺑِﻪِ ﺳَﻘِﻴﻤُﻨَﺎ، ﺑِﺈِﺫْﻥِ ﺭَﺑِّﻨَﺎ ‏» . ﻣﺘﻔﻖٌ
ﻋَﻠَﻴْﻪِ

আয়েশা রাদিয়াল্লাহু ‘আনহা হতে বর্ণিত, যখন কোন ব্যক্তি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামএর নিকট নিজের কোন অসুস্থতার অভিযোগ করত অথবা (তার দেহে) কোন ফোঁড়া কিংবা ক্ষত হত, তখন নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নিজ আঙ্গুল নিয়ে এ রকম করতেন। (হাদীসের রাবী) সুফ্য়ান তাঁর শাহাদত আঙ্গুলটিকে যমীনের উপর রাখার পর উঠালেন। (অর্থাৎ তিনি এভাবে মাটি লাগাতেন।) অতঃপর দো‘আটি পড়তেনঃ

‘বিসমিল্লাহি তুরবাতু আরদ্বিনা, বিরীক্বাতি বা’যিবনা, য়্যুশফা বিহী সাক্বীমুনা, বিইযনি রাব্বিনা।’

অর্থাৎ আল্লাহর নামের সঙ্গে আমাদের যমীনের মাটি এবং আমাদের কিছু লোকের থুতু মিশ্রিত করে (ফোঁড়াতে) লাগালাম। আমাদের প্রতিপালকের আদেশে এর দ্বারা আমাদের রুগী সুস্থতা লাভ করবে। (বুখারী ও মুসলিম)

17/04/2020

✍ প্রশ্নঃ কোন সাহাবী নবী (সাঃ) এর দশ বছর খিদমত করেন?

👉 উত্তরঃ আনাস বিন মালেক (রাঃ)

16/04/2020

✍ ইবনে মাসঊদ থেকে বর্ণিতঃ
নাবী (সা.) এই দুআ করতেন,

আল্লাহুম্মা ইন্নী আসআলুকাল হুদা, ওয়াত তুক্বা, ওয়াল আফা-ফা ওয়াল গিনা।’

অর্থাৎ, হে আল্লাহ! আমি তোমার নিকটে সৎপথ, সংযমশীলতা, চারিত্রিক পবিত্রতা ও অভাবশূন্যতা প্রার্থনা করছি। (মুসলিম ৭০৭৯নং)

16/04/2020

✍ প্রশ্নঃ রাসূল (স.) বলেন, “ক্বিয়ামত দিবসে আমার উম্মতের পরিচয় হচ্ছে, তাদের কপাল ও পদযুগল শুভ্র আলোকময় হবে।” কি কারণে তা হবে?

👉 উত্তরঃ ওযুর কারণে।

14/04/2020

আল ফাতিহা

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ

শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু।

In the name of Allah, Most Gracious, Most Merciful.

الْحَمْدُ لِلَّهِ رَبِّ الْعَالَمِينَ

যাবতীয় প্রশংসা আল্লাহ তাআলার যিনি সকল সৃষ্টি জগতের পালনকর্তা।

Praise be to Allah, the Cherisher and Sustainer of the worlds;

الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ

যিনি নিতান্ত মেহেরবান ও দয়ালু।

Most Gracious, Most Merciful;

مَالِكِ يَوْمِ الدِّينِ

যিনি বিচার দিনের মালিক।

Master of the Day of Judgment.

إِيَّاكَ نَعْبُدُ وَإِيَّاكَ نَسْتَعِينُ

আমরা একমাত্র তোমারই ইবাদত করি এবং শুধুমাত্র তোমারই সাহায্য প্রার্থনা করি।

Thee do we worship, and Thine aid we seek.

اهْدِنَا الصِّرَاطَ الْمُسْتَقِيمَ

আমাদেরকে সরল পথ দেখাও,

Show us the straight way,

صِرَاطَ الَّذِينَ أَنْعَمْتَ عَلَيْهِمْ غَيْرِ الْمَغْضُوبِ عَلَيْهِمْ وَلَا الضَّالِّينَ

সে সমস্ত লোকের পথ, যাদেরকে তুমি নেয়ামত দান করেছ। তাদের পথ নয়, যাদের প্রতি তোমার গজব নাযিল হয়েছে এবং যারা পথভ্রষ্ট হয়েছে।

The way of those on whom Thou hast bestowed Thy Grace, those whose (portion) is not wrath, and who go not astray.

14/04/2020

✍ ঋন বা পর নির্ভরশীলতা মুক্ত থাকার দুয়া:

ﺍﻟﻠَّﻬُﻢَّ ﺍﻛْﻔِﻨِﻲ ﺑِﺤَﻼَﻟِﻚَ ﻋَﻦْ ﺣَﺮَﺍﻣِﻚَ، ﻭَﺃَﻏْﻨِﻨِﻲ ﺑِﻔَﻀْﻠِﻚَ ﻋَﻤَّﻦْ
ﺳِﻮَﺍﻙَ

আল্লা-হুম্মাকফিনী বিহালা- লিকা ‘আন হারা-মিকা ওয়া আগনিনী বিফাদ্বলিকা ‘আম্মান সিওয়াক হে আল্লাহ! আপনি আমাকে আপনার হালাল দ্বারা পরিতুষ্ট করে আপনার হারাম থেকে ফিরিয়ে রাখুন এবং আপনার অনুগ্রহ দ্বারা আপনি ছাড়া অন্য সকলের থেকে আমাকে অমুখাপেক্ষী করে দিন।
তিরমিযী ৫/৫৬০, নং ৩৫৬৩। আরও দেখুন, সহীহুত তিরমিযী, ৩/১৮০।

ﺍﻟﻠَّﻬُﻢَّ ﺇِﻧِّﻲ ﺃَﻋُﻮﺫُ ﺑِﻚَ ﻣِﻦَ ﺍﻟْﻬَﻢِّ ﻭَﺍﻟْﺤَﺰَﻥِ، ﻭَﺍﻟْﻌَﺠْﺰِ ﻭَﺍﻟْﻜَﺴَﻞِ،
ﻭَﺍﻟْﺒُﺨْﻞِ ﻭَﺍﻟْﺠُﺒْﻦِ، ﻭَﺿَﻠَﻊِ ﺍﻟﺪَّﻳْﻦِ ﻭَﻏَﻠَﺒَﺔِ ﺍﻟﺮِّﺟَﺎﻝِ

আল্লা-হুম্মা ইন্নী আ‘উযু বিকা মিনাল হাম্মি ওয়াল হাযানি, ওয়া আ‘ঊযু বিকা মিনাল-‘আজযি
ওয়াল-কাসালি, ওয়া আ‘ঊযু বিকা মিনাল-বুখলি ওয়াল-জুবনি, ওয়া আ‘ঊযু বিকা মিন দ্বালা‘য়িদ্দাইনি ওয়া গালাবাতির রিজা-ল

হে আল্লাহ! নিশ্চয় আমি আপনার আশ্রয় নিচ্ছি দুশ্চিন্তা ও দুঃখ থেকে, অপারগতা ও অলসতা থেকে, কৃপণতা ও ভীরুতা থেকে, ঋণের ভার ও মানুষদের দমন-পীড়ন থেকে।(বুখারী, ৭/১৫৮, নং ২৮৯৩। )

14/04/2020

✍ প্রশ্নঃ কোন্ নারী বন্ধ্যা ও বৃদ্ধা হওয়ার পরও সন্তান লাভ করেছিলেন?

👉 উত্তরঃ যাকারিয়া (আঃ) এর স্ত্রী।

13/04/2020

✍ যে ব্যক্তি রাতে ঘুম থেকে জেগে উঠে বলে:

“লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াহ্’দাহ লা-শারীকালাহু, লাহুল মুলকু, ওয়ালাহুল হামদু, ওয়াহুয়া আ’লা কুল্লি শায়ইন ক্বাদীর। সুবহা’-নাল্লাহি, ওয়ালহা’মদু লিল্লাহি, ওয়া লা ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু, ওয়াল্লা-হু আকবার। ওয়া লা- হা’ওলা ওয়ালা- ক্বুওয়াতা ইল্লা- বিল্লা-হিল আ’লিয়্যিল আ’যীম। রাব্বিগফির লী”

তাকে ক্ষমা করে দেওয়া হবে। যদি সে দোআ’ করে, তবে তার দোআ’ কবুল হবে। যদি সে উঠে ওযু করে নামায পড়ে, তবে তার নামায কবুল করা হবে”।

[বুখারীঃ ফাতহুল বারীঃ ১১৫৪। সহীহ ইবন মাজাহ্: ২/৩৩৫]

13/04/2020

সাইয়েদুল ইস্তিগফার-বা আল্লাহর নিকট ক্ষমা চাওয়ার শ্রেষ্ঠ দোয়াঃ

এই দোয়া সকালে পড়ে রাতের আগে মারা গেলে অথবা রাতে পড়ে সকালের আগে মারা গেলে সে জান্নাতে যাবে। [বুখারী-৬৩০৬]

13/04/2020

✍ মুনাজাতে বেশি বেশি করে আর বিশেষ করে সিজদাতে বা সালাম ফেরানোর পূর্বে এই দুয়া করতে পারেন।

ﺍَﻟﻠﻬﻢ ﺇِﻧِّﻲ ﺃَﺳْﺄَﻟُﻚَ ﺍﻟﻬُﺪَﻯ، ﻭَﺍﻟﺘُّﻘَﻰ، ﻭَﺍﻟﻌَﻔَﺎﻑَ، ﻭَﺍﻟﻐِﻨَﻰ

আল্লা-হুম্মা ইন্নি আস-আলুকাল হুদা ওয়াত-তুকা ওয়াল আ'ফাফা ওয়াল গি’না।

অর্থ: হে আল্লাহ আমি তোমার কাছে হেদায়েত, তাকওয়া, সুস্থতা ও সম্পদ প্রার্থনা করছি। মুসলিম ২৭২১, তিরমিযী ৩৪৮৯, ইবনু মাজাহ ৩৮৩২, আহমাদ ৩৬৮৪

বি. দ্র. সেজদায় এই দুয়া পরতে চাইলে আগে সেজদার তাসবীহ (সুবহানা রাব্বিয়াল আলা) পরে নিতে হবে। সালাম ফিরানোর আগে অর্থাৎ তাশাহুদ, দুরুদে ইব্রাহীমের পরে পরা যাবে।

13/04/2020

✍ প্রশ্নঃ কোন্ নবী জেল খেটেছেন?

👉 উত্তরঃ ইউসুফ (আঃ)

12/04/2020

✍ আগুনে পুড়ে মৃত্যু থেকে রক্ষার দু'য়া ও আমল:

ﺍﻟﻠَّﻬُﻢَّ ﺇِﻧِّﻲ ﺃَﻋُﻮﺫُ ﺑِﻚَ ﻣِﻦَ ﺍﻟﺘَّﺮَﺩِّﻱ، ﻭَﺍﻟْﻬَﺪْﻡِ، ﻭَﺍﻟْﻐَﺮَﻕِ، ﻭَﺍﻟْﺤَﺮِﻳﻖِ ،

আল্লাহুম্মা ইন্নী আউযুবিকা মিনাত-তারাদ্দী ওয়াল হাদমি, ওয়াল গারাক্বি ওয়াল হারীক্ব,

(হে আল্লাহ! আমি আপনার নিকট আশ্রয় চাচ্ছি উঁচু স্থান থেকে পড়ে এবং কোনো কিছুর নিচে চাপা পড়ে এবং অগ্নিকান্ড ও পানিতে ডুবে মৃত্যুবরণ করা থেকে,)

ﻭَﺃَﻋُﻮﺫُ ﺑِﻚَ ﺃَﻥْ ﻳَﺘَﺨَﺒَّﻄَﻨِﻲ ﺍﻟﺸَّﻴْﻄَﺎﻥُ ﻋِﻨْﺪَ ﺍﻟْﻤَﻮْﺕِ ،

ওয়া আঊযুবিকা আইঁয়াতাখাব্বাতানিয়াশ-শায়ত্বানু ইনদাল মাউত

(আর আপনার আশ্রয় গ্রহণ করছি যাতে মৃত্যুকালে শয়তান আমাকে বিপথগামী করতে না পারে)

ﻭَﺃَﻋُﻮﺫُ ﺑِﻚَ ﺃَﻥْ ﺃَﻣُﻮﺕَ ﻓِﻲ ﺳَﺒِﻴﻠِﻚَ ﻣُﺪْﺑِﺮًﺍ، ﻭَﺃَﻋُﻮﺫُ ﺑِﻚَ ﺃَﻥْ ﺃَﻣُﻮﺕَ ﻟَﺪِﻳﻐًﺎ

ওয়া আঊযুবিকা আন আমূতা ফী সাবীলিকা মুদবিরা, ওয়া আউযুবিকা আন অমূতা লাদীগা

(এবং আপনার আশ্রয় চাচ্ছি যাতে আপনার রাস্তায় জিহাদকালে পৃষ্ঠ প্রদর্শনপূর্বক মারা না যাই। আর আপনার নিকট আশ্রয় প্রার্থনা করছি, যাতে সর্প দংশনে মারা না যাই।) আবু দাউদ ২/৯২,সহীহ নাসাঈ ৩/১১২৩

12/04/2020

✍ প্রশ্নঃ কোন সাহাবীকে নবী (সাঃ) ইসলামের প্রথম দূত (শিক্ষক) হিসেবে মদীনায় প্রেরণ করেন?

👉 উত্তরঃ মুসআব বিন উমাইর (রাঃ)

11/04/2020

✍যে_সকল_গুনাহের_উপর_লানত_করা_হয়েছে ( সমাপ্তি )


কুরআন-হাদীসে যে সকল গুনাহের উপর লা‘নত করা হয়েছেঃ

👉 ৩০. রাসূল সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন: যে ঘুষ খাবে, যে বিনা অপারগতায় ঘুষ দিবে, যে ঘুষের ব্যবস্থা করবে সকলের উপর আল্লাহ তা‘আলার লা‘নত। (মুসনাদে আহমাদ হা: নং ৬৫৪০)

👉 ৩১. হযরত রাসূল সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন: ছয় প্রকার লোককে আমি লা‘নত করেছি এবং সকল নবীগণ আ. লা‘নত করেছেন। অথচ সকল নবীদের দু’আ ও বদ দু’আ কবূল হয়ে থাকে। যথা:

১. যারা বিকৃত করে কুরআনের অর্থ করবে।

২. যারা আল্লাহর সৃষ্টি তাকদীরকে অবিশ্বাস করবে।

৩. যারা আল্লাহর হারাম করা জিনিষকে হালাল করবে।

৪. যারা জোর জবরদস্তী করে নেতৃত্ব ও কর্তৃত্বের শক্তি অর্জন করত: দুষ্ট পাপী লোকদের শ্রেষ্ঠত্ব দান করে নেতৃত্বের আসনে বসাবে।

৫. যার আমার (রূহানী ও জিসমানী) বংশধরদের অবমাননা করবে।

৬. যারা আমার উম্মত হয়ে আমার সুন্নাত (আমার প্রবর্তিত নীতি, আমার প্রদর্শিত পথ এবং আমার প্রকৃত আদর্শ) পরিত্যাগ করে ভিন্ন আদর্শ, ভিন্ন পথ ও ভিন্ন নীতি অনুসরণ করবে। (তিরমিযী: হা: নং ২১৫৪)

👉 ৩২. রাসূল সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম তার উপরও লা‘নত করেছেন (অর্থাৎ, আল্লাহ যাতে তাদের সাহায্য ও সহানুভূতি না করেন এ জন্য বদ দু’আ ও অভিশাপ দিয়েছেন) ও যে আল্লাহর ডাক (হাইয়্যা ‘আলাস সলাহ, হাইয়্যা ‘আলাল ফালাহ) (আসো তোমরা জীবনের স্বার্থকতার দিকে, নামাযের জামা‘আতের দিকে) শ্রবণ সত্ত্বেও আদেশ পালন করেনি। অর্থাৎ শরীয়ত সম্মত উজর না থাকার সত্ত্বেও জামা‘আতে উপস্থিত হয়নি।

👉 ৩৩. রাসূল সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন: আল্লাহর লা‘নত তাদের উপর যারা জমিনের সীমানা বা সীমানার খুঁটি পরিবর্তন করে। (মুসলিম: হা: নং ১৯৭৮)

💭
[হযরত থানভী রহ.-এর-জাযাউল আ’মাল নামক কিতাব থেকে সংগৃহীত]

11/04/2020

✍ প্রশ্নঃ বিদআত কাকে বলে?

👉 উত্তরঃ ছোয়াবের নিয়ত করে যে ইবাদত করা হয়; অথচ তার পক্ষে শরীয়তে দলীল পাওয়া যায় না, তাকেই বিদআত বলে

Want your school to be the top-listed School/college in Sylhet?

Click here to claim your Sponsored Listing.

Location

Website

Address

Sylhet
Sylhet
3100
Other Education Websites in Sylhet (show all)
Dept. of Industrial & Production Engineering,SUST Dept. of Industrial & Production Engineering,SUST
Academic Building " C", SUST
Sylhet, 3114

"Industrial Revolution; We mean it." ™

Eusuf's Care Eusuf's Care
Beanibazer
Sylhet

This for everyone skill developing page.I hope everyone communicate with us and share your valuable opinion, idea,smartness etc..Thanks for connect with us.

Iftekhar EduFactor Iftekhar EduFactor
Sylhet
Sylhet, 3100

Welcome to Iftekhar EduFactor

Freelancing with Shopify - Inathganj Freelancing with Shopify - Inathganj
Inathganj
Sylhet

Shopify is a subscription to a software service that offers you to create a website and use their sh

Freelancer learner Hub Freelancer learner Hub
Anondo 41/2 (1st Floor), Khoradipara
Sylhet, 3100

Freelancer Learners' Hub BD is the Best Online Freelancing Training Institution In BD

Erning By Filansing Erning By Filansing
Bahubal. Habiaganj. Sylhet
Sylhet, 3310

who want to earning by frilansing.. plz contact me.. and inbox my messenger..

Student Parliament, Zakiganj Fadil Senior Madrasah Student Parliament, Zakiganj Fadil Senior Madrasah
Zakiganj
Sylhet, 3190

ভিপি - সাদিকুল ইসলাম তুহিন জিএস- মো. কামরুল ইসলাম এজিএস- ফাইজ মাহমুদ রাইয়ান

Sylhet Online Primary Education Sylhet Online Primary Education
Sylhet
Sylhet, 3130

Students will be able to study by joining here.

IELTS Life Skills with Excel Institute IELTS Life Skills with Excel Institute
Excel Institute Point View Shopping Centre (3rd Floor) Amborkhana Sylhet
Sylhet, 3100

Learning English is fun :-)