South Sankrail High School

সব থেকে সেরা

Daily update this page

04/05/2015

ইংরেজী নিয়ে ৪৩ টি মজার এবং
বিস্ময়কর তথ্য

1. সবচেয়ে লম্বা ইংরেজি শব্দ হল-
Floccinaucinihilipilification 2. 80 কে letter marks
বলা হ্য় কারণ L=12, E=5, T=20, T=20, E=5,
R=18(অক্ষরের অবস্হানগত
সংখ্যা) সুতরাং 12+5+20+20+5+18=80
3. ইংরেজি madam ও reviver
শব্দকে উল্টো করে পড়লে একই হবে।
4. “a quick brown fox jumps over the lazy dog”
বাক্যটিতে ইংরেজি ২৬টি অক্ষর
আছে। 5. “ i am” সবচেয়ে ছোট
ইংরেজি বাক্য। 6. “Education” ও
“Favourite” শব্দে সবগুলো vowel আছে। 7.
“Abstemious ও Facetious ” শব্দে সবগুলো
vowel
আছে। মজার ব্যাপার হল শব্দের vowel
গুলো ক্রমানুসারে ( a-e-i-o-u)
আছে। 8. ইংরেজি Q দিয়ে গঠিত সকল
শব্দে Q এ পরে u আছে। 9. Queueing এমন
একটি শব্দ যার মধ্যে ৫টি vowel
একসঙ্গে আছে। 10. একই অক্ষরের
পুনরাবৃত্তি না করে সবচেয়ে
দীর্ঘ শব্দ হল Uncopyrightable। 11. Rhythm
সবচেয়ে দীঘ ইংরেজি শব্দ যার
মধ্যে vowel নাই। 12.
Floccinaucinihilipilification সবচেয়ে বেশি
vowel সমৃদ্ধ শব্দ যাতে ১৮টি vowel
আছে। 13. vowel যুক্ত সবচেয়ে ছোট
শব্দ হল A (একটি) ও I (আমি) । 14. vowel
বিহীন সবচেয়ে ছোট শব্দ হল By। 15.
গুপ্তহত্যার ইংরেজি প্রতিশব্দ
Assassination মনে রাখার সহজ উপায় হল
গাধা-গাধা-আমি-জাতি। 16.
Lieutenant শব্দের উচ্চারণ
লেফট্যান্যান্ট বানান মনে
রাখার সহজ উপায় হল মিথ্যা-তুমি-
দশ-পিপড়া। 17. University লেখার সময় v
এর পরে e ব্যবহৃত কিন্তু Varsity
লেখার সময় v এর পরে a ব্যবহৃত হয়।
18. “Uncomplimentary” শব্দে সবগুলো
vowel আছে।
মজার ব্যাপার হল শব্দের vowel
গুলো উল্টো ক্রমানুসারে ( u-o-i-
e-a) আছে। 19. “Exclusionary” ৫টি vowel
সমৃদ্ধ এমন একটি শব্দ
যার মধ্যে কোন অক্ষরের
পূনারাবৃত্তি নাই। 20. ”study, hijak,
nope, deft” শব্দগুলোর প্রথম ৩
টি অক্ষর ক্রমানুসারে আছে। 21.
“Executive ও Future“এমন দুটি শব্দ যাদের
এক অক্ষর পর পর vowel আছে। 22.
Mozambique এমন একটি দেশের নাম
যাতে সবগুলো vowel আছে। 23. A1
একমাত্র শব্দ যাতে ইংরেজী অক্ষর
ও সংখ্যা আছে। 24. I এর পরে am বসে
কিন্তু I is the ninth letter of
alphabet !!!!!!!!!!!! 25. It is raining. 26. Bristi is
reading. 27. বাক্য দুইটির অর্থ কিন্ত
একটাই, বৃষ্টি পড়ছে 28. Stewardesses
হল সবচেয়ে বড় ইংরেজি শব্দ যা
কিবোর্ডে লিখতে শুধু বাম হাত
ব্যবহৃত হয়। 29. Dreamt একমাত্র
ইংরেজি শব্দ যার শেষে mt আছে ।
30. ইংরেজিতে ৩টি শব্দ আছে
যাদের শেষে ceed আছে । সেগুলো
হলঃ proceed , exceed , succeed 31. Almost
সবচেয়ে বড় ইংরেজি শব্দ যার
বর্ণগুলো ক্রমানুসারে আছে । 32.
ইংরেজিতে মাত্র ৪টি শব্দ আছে
যাদের শেষে dous আছে। এগুলো হলঃ
tremendous , horrendous ,
stupendous , hazardous 33. Lollipop হল
সবচেয়ে বড় ইংরেজি শব্দ
যা কিবোর্ডে লিখতে শুধু ডান
হাত ব্যবহৃত হয়। 34. screeched হল এক
syllable বিশিষ্ট সবচেয়ে বড়
ইংরেজি শব্দ। 35. Underground এমন একটি
শব্দ যা প্রথম ৩টি অক্ষর
und শেষেও রয়েছে। 36. set শব্দের
সবচেয়ে বেশি অর্থ রয়েছে। 37.
therein এমন একটি শব্দ যা থেকে কোন
রকম সাজানো ছাড়াই ১০টি নতুন
শব্দ তৈরী করা যায়।
সেগুলো হলঃ the, there, he, in, rein, her,
here, ere,
therein, herein 38. Typewriter সবচেয়ে বড়
ইংরেজি শব্দ যা কিবোর্ডে ে
লিখতে শুধু উপরের সারি ব্যবহৃত
হয়। 39. indivisibility এমন একটি শব্দ যাতে
একটি মাত্র vowel
i ৬ বার আছে। 40. Bookkeeper শব্দে ৩
জোড়া অক্ষর oo,kk,ee
পাশাপাশি আছে। 41. understudy এমন
একটি শব্দ যাতে ৪টি ক্রমিক অক্ষর
rstu আছে। 42. queue একমাত্র ইংরেজি
শব্দ যার শেষের ৪ অক্ষর বাদ
দিলেও একই উচ্চারণ হয়। 43. Regulation
এমন একটি শব্দ যার মধ্যে ৫টি vowel
একসঙ্গে আছে ।

04/05/2015

আশ্চর্যজনক সব সত্য তথ্যের
সমাহার।দেখুনতো আপনি জানেন
নাকি?

সবাই কেমন আছেন? আজ আপনাদের
সাথে কিছু আশ্চর্যজনক সত্যি
তথ্য শেয়ার
করব।তথ্যগুলো পেয়েছি অনলাইন
ঢাকা গাইড ডট কম সাইট থেকে। তবে
চলুন
জেনে নেই ...
> আমরা তো খাবার খেয়েই ভাবি
কাজ শেষ
কিন্তু এ খাবার পুরোপুরি হজম
করতে প্রায়
সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা সময় লাগে।
> ফ্লেমিঙ্গো পাখি তখনই খেতে
পারে যখন
তাদের মাথা পুরোপুরি উলটো করে
ফেলে।
> মানুষের চোখ ৫৭৬ মেগা
পিক্সেল। একজন
স্বাভাবিক মানুষ মিনিটে ১২ বার
চোখের পলক
ফেলে এবং একদিনে দশহাজার বার।
> চোখের কর্ণিয়া একমাত্র
টিস্যু যার রক্তের
প্রয়োজন হয় না। চোখ ২ মিলিয়ন
কর্মরত
প্রত্যঙ্গ এর সমন্বয়ে গঠিত। চোখ
প্রতি ঘন্টায় ৩৬০০০ বিট (একক) তথ্য
প্রক্রিয়া করতে পারে।
> পৃথিবীর বিখ্যাত ও রহস্যময়
সভ্যতা হলো মায়ান সভ্যতা। এই
মায়ানরা বিজ্ঞান,
জ্যোতিষচর্চা ও মহাকাশ
জ্ঞানের দিক থেকে সব সময়ের
সবাইকে অতিক্রম করেছিল। তাদেরই
একটি বিখ্যাত শহরের নাম
পালাঙ্কি। এ
শহরটির অবস্থান মেক্সিকোর
চিয়াপাস রাজ্যের
গহিন অরণ্যে। বিংশ শতাব্দীর
শুরুর
দিকে ফ্রান্স ব্লুম নামে একজন
আবিষ্কারক
মেক্সিকোর একটি অরণ্যে
পালাঙ্কির
ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পান।
> আলবার্ট আইনস্টাইনকে ১৯৫২
সালে ইসরাইলের প্রেসিডেন্ট
হবার
জন্যে অফার করা হয়েছিল, কিন্তু
তিনি সেটা প্রত্যাখ্যান
করেছিলেন।
> মোনালিসা’র কোন ভ্রু ছিল না।
কারণ
রেনেসার যুগে ভ্রু শেভ করে
ফেলাটাই ছিল
তখনকার ফ্যাশন।
> কানের পাশে কোন একটা কিছু
(ফানেল
জাতীয় যেমন কাপ) ধরি তখন যে
গর্জন
শুনতে পাই তা আসলে সাগরের শব্দ
নয়। রক্ত
আমাদের কানের শিরা দিয়ে যে
প্রবাহিত
হচ্ছে তার শব্দ।
> আদি গ্রীসে কোন একটা মেয়ের
দিকে আপেল ছোড়া বিয়ের
অফিশিয়াল
প্রপোজাল হিসেবে গণ্য হত। আর
মেয়েটা যদি সেটা ধরতো তার
মানে হচ্ছে সে এই প্রস্তাবে
রাজি।
> আদিকালে অপরিচিত মানুষরা
হ্যান্ডশেক
করতো এটা বোঝানোর
জন্যে যে তারা নিরস্ত্র।
> কিছু লোক প্রকৃতপক্ষে খুব
সুখি হলে ভয়
পায় কারণ তারা মনে করে এর
পিছনে কিছু
মর্মান্তিক ঘটনা আসন্ন। এটি
Cherophobia
নামে পরিচিত।
> আপনি আপনার নাক দুই আঙ্গুল
দিয়ে চেপে ধরে মুখ বন্ধ করে
mmmmm ৭
সেকেন্ডের বেশি করতে পারবেন
না
> Steve Jobs যখন অসুস্থ ছিলেন তখন
অক্সিজেন মাস্ক লাগান নি। কারণ
এটা যেভাবে ডিজাইন করা হয়েছে
তা তার
পছন্দ হয় নি।
> অস্ট্রেলিয়াতে বাচ্চারা
সিগারেট
কিনতে পারবে না!! কারণ এটা
আইনবিরোধী!!
কিন্তু সিগারেট খেতে/টানতে
পারবে!!
এতে কোনো বাধা নেই!!
> গাধা একমাত্র চতুষ্পদ প্রাণী
যে নিজের
চারটি পা-ই দেখতে সক্ষম ।
> পৃথিবীর সবচেয়ে মূল্যবান বা
দামী পানি হল
হাওয়াইয়ের গভীর সমুদ্র তলদেশ
থেকে তুলে আনা উচ্চ খনিজ সমৃদ্দ
ও বিশেষ
উপায়ে লবণমুক্ত করা 'কণা
নিগারি' পানি। এর
এক আউন্স পানির দাম সাড়ে ১৭
ডলার।
> রবিবার দিয়ে শুরু হওয়া মাসে
১৩ তারিখ
শুক্রবার হবে।
> পৃথিবীতে কতই না প্রাণী। এতো
বড়
থেকে শুরু করে চোখে দেখা যায়
না এমন
প্রাণীও রয়েছে। তবে আমাদের
পৃথিবীতে ৯৫%
প্রাণীই একটা মুরগীর ডিমের
চেয়েও ছোট।
> ঢাকায় প্রথম বৈদ্যুতিক বাতি
জলে - ৭
ডিসেম্বর ১৯০১ সালে আহসান
মঞ্জিলে।
> চা আবিষ্কার হয় চীনে, আজ
থেকে প্রায় ৩
হাজার বছর আগে। ফুটন্ত পানিতে
ভুলে কিছু
চা পাতা পড়ে গিয়ে এই পানীয়
তৈরি হয়ে যায়।
নিউ ইয়র্কে ১৯০৯ সালে টমাস
স্যুলিভান
প্রথম টি-ব্যাগের প্রচলন করেন।

04/05/2015

ছয়টি ৯ দিয়ে ১০০ হয়

ছয়টি ৯ দিয়ে ১০০ হয়,
অনেক ভেবেও
মেলাতে পারিনি ছোটবেলায়
কিন্তু এখন পারি আর
ভাবি এতো সহজ হিসাব
পারিনি ছোটবেলায় তাহলে এখন
সবাই
কে সিখিয়ে দিচ্ছি
(৯/৯) + ( ৯ গুন ৯) + ( ৯ +
৯)
= ১ + ৮১ +১৮
= ১০০

04/05/2015

তারিখ শুনে বার বলার কৌশল:
চেষ্টা করুন আপনিও পারবেন।

একটু সময় নিয়ে পড়েন নিচের নিয়ম
গুলো:
নিচের নিয়মটি সঠিক ভাবে অনুসরণ করুন
আপনাকে শুধু দুইটি জিনিস জানতে
হবে একটি মাসের কোড অপরটি বারের
কোড :
২০১৪ সালের বার মাসের জন্য কোডটা
হল: “চার, শূন্য, শূন্য, তিন, পাঁচ, এক,তিন, ছয়,
দুই, চার, শূন্য, দুই”
সংক্ষেপে “চা শু শু, তি পা এ, তি ছ দু,
চাশু দু” অথবা “ ৪০০, ৩৫১, ৩৬২, ৪০২” এই
সংখ্যাগুলো হল জানুয়ারি থেকে
ডিসেম্বর পর্যন্ত ধারাবাহিক ভাবে
প্রতিটি মাসের কোড অর্থাৎ
জানুয়ারি হলে “৪” ফেব্রুয়ারি হলে“০”
এভাবে ডিসেম্বর পর্যন্ত।
এবার বারের কোড জানার পালা একদম
সোজা শনিবার থেকে ধারাবাহিক
ভাবে শুক্রবার পর্যন্ত বারের কোড
নাম্বার হল ১ থেকে ৭ অর্থাৎ ১ হলে
শনিবার, ২ হলে রবিবার এভাবে
শুক্রবার পর্যন্ত।
এবার আসল কাজ, যে মাসের যে
তারিখের নাম জানতে চাওয়া হবে,
সে মাসের তারিখের সাথে সে
মাসের বারের কোড যোগ করুন, যোগফল
১- ৭ এর মধ্যে হলে বারের কোড
অনুসারে বারের নাম বলে দিন ব্যাস !
বুঝতে পারেন নাই ?
উদাহরণ দিচ্ছি: সহজে বুঝতে পারবেন
.....
২০১৪ সালের এপ্রিলের ২ তারিখ কি
বার? এপ্রিল মাসের কোড তিন(৩)
মাসের কোড তারিখ ৩ ২=৫ বারের
কোড অনুসারে ১ শনিবার হলে ৫ হয়
বুধবার অর্থাৎ এপ্রিলের ২ তারিখ
বুধবার । শিখে ফেলেছেন? আরে না
.... আসল কথাইতো বলিনাই যদি যোগফল
৭ এর বেশি হয় তাহলে ??
------চিন্তা করার কিছু নাই প্রথমে উক্ত
যোগফলকে ৭ দিয়ে ভাগ দিন অবশিষ্ট
ভাগশেষটা হল বারের কোড ভাগশেষ
শূন্য হলে শুক্রবার মনে করুন, যোগফল যদি
১৩ হয় ৭ দিয়ে ভাগ দিলে ভাগশেষ
থাকে ৬ । ৬ মানে বৃহস্পতিবার ।
৭)১৩(১
>>>৭
-----------
>>>৬
উদাহরণঃ ২০১৪ সালের জানুয়ারির ১৫
তারিখকি বার? নিয়ম অনুসারে
জানুয়ারি মাসের কোড “৪” মাসের
কোড তারিখ ৪ ১৫= ১৯ (যোগফল ৭ এর
চেয়ে বড়) ১৯/৭ ভাগশেষ ৫ বারের
কোড অনুসারে ৫ হল বুধবার অর্থাৎ
জানুয়ারির ১৫ তারিখ বুধবার ।
৭)১৯(২
>>১৪
----------
>>>৫
এবার আপনাদের পরীক্ষা দেয়ার
পালা:
২০১৪ সালের অক্টোবরের ২ তারিখ কি
বার ?
২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারির ১৮ তারিখ
কি বার?

04/05/2015

কখনো ভেবে
দেখেছেনইংরেজিতে সবচেয়ে বড়
শব্দ কি হতে পারে ?

কখনো ভেবে দেখেছেন
ইংরেজিতে সব
চেয়ে বড় শব্দ কি হতে পারে ?
- একটা প্রোটিন আছে যার নাম
১৮৯৮১৯
গুলো বর্ণ
দিয়ে বানানো হয়েছে... এর
সংক্ষিপ্ত নাম টিটিন। উচ্চারন
করতে নাকি ৩.৫ ঘন্টা সময় লাগে!!!
- Lopadotemachoselachogaleo­­
kranioleipsanodrimhypotrimmatosi
lphioparaomelitokatakechymeno­­
kichlepikossyphophattoperister­­
alektryonoptekephalliokigklopeleio­­
lagoiosiraiobaphetraganopterygon জী,
আপনি ঠিকই দেখেছেন...
এটা ইংরেজি সাহিত্যে ব্যাবহার
করা সব
চেয়ে বড় শব্দ! এটা গ্রীক সাহিত্য
থেকে অনুবাদ করা হয়েছিলো।
কোন
একটা মজাদার খাবারের ডিশ
বা মেনু
বুঝাতে এই শব্দটা ব্যাবহার
করা হয়েছিলো। শব্দটাতে ১৮৩
টি বর্ণ
আছে... !!
# Pneumonoultrami croscopicsilico
volcanoconiosis
বেশিরভাগ ডিকশনারিতে সব
চেয়ে বড়
শব্দ হিসেবে এই শব্দটি আছে। এই
শব্দে ৪৫ টি বর্ণ আছে। এটা এক
ধরনের
ফুসফুস রোগ।

04/05/2015

আমাদের জীবনে মস্তিস্কের কতটুকু
ব্যবহার করতে পারি ?

মস্তিষ্ক হচ্ছে যেকোন
প্রাণীর সেন্ট্রাল
প্রসেসিং ইউনিট
বা সংক্ষেপে সিপিইউ।
প্রসেসর, র্যাম, রম যাই
বলুন না কেন, সব ধরণের কার্যক্রমই
এখানে নিয়ন্ত্রিত হয়।
মানব মস্তিষ্কের গঠন
এবং ক্ষমতা নিঃসন্দেহে অনেক
বেশি।
কিন্তু এক জীবনেতার কতটুকু ব্যবহার
করতে পারি আমরা?
মস্তিষ্ক আমাদের
জীবনে মস্তিস্কের কতটুকু
ব্যবহার করতে পারি?
image
কেউ কেউ হয়ত ভাবেন
আমরা আমাদের মস্তিষ্কের
মাত্র ১০ শতাংশ
কাজে লাগাতে পারি। আর
বাকী ৯০ শতাংশ
থেকে যায় অব্যবহৃত। কিন্তু সময়ের
বিবর্তনে এসব
ধ্যানধারণা ভুল
বলে প্রমাণিত হয়েছে।
আসলে আমরা যখন কোন
সামান্য হাত মুঠকরে ধরার মত সহজ কাজও
করি তখনও
ব্রেইনে ১০% এর
বেশি লোড পরে।
এমনকি কিছু না করে শুধু
অলস সময়কাটালেও
মস্তিষ্ক ঠিকই সক্রিয় থাকে।কেননা
আমাদের
শরীরের মধ্যে যেসব
অনৈচ্ছিক
পেশি আছে (উদাহরণস্বরূপ
হৃদপেশি) সেগুলোতে সঠিক
নির্দেশনা দিতে মস্তিষ্কের বিকল্প
নেই।
আমাদের স্নায়ুকোষগুলোব
বেশ ভালোই “রিসোর্স
হাংরি”; এরা শ্বাসের
সাথে গৃহীত অক্সিজেনের
প্রায় ২০% নিয়ে থাকে।
আর রক্তের গ্লুকোজ তো তাদের খাদ্য
তালিকায়
আছেই ।
বুজতে সমস্যা হলে ম্যাসেজ এ
জিজ্ঞাসা করবেন।

04/05/2015

পরীক্ষায় ভয় ভীতি কাটাতে
পরীক্ষার পূর্ব মুহূর্তে যে বিষয়গুলো
মনে রাখবেন!!

এমন অনেকেই আছেন পরীক্ষা তো দূরের
কথা পরীক্ষার নাম শুনলেই ভয়ে অস্থির
হয়ে যান। এই
সমস্যা যে শুধু স্কুল পড়ুয়া ছাত্র
ছাত্রীদের
মধ্যে দেখা যায় এমনটা নয়, বরং এমন
কেউ কেউ আছেন
যারা লেখাপড়ার শেষ পর্যায়ে এসেও
এখনো যে কোন ধরণের পরীক্ষার নাম
শুনলেই
চমকে ওঠেন। কিন্তু এসবের
ঝামেলাতে পড়ে আমরা ভুলেই যাই
পরীক্ষা নিয়ে আমরা যতবেশি স্থির
আর শান্ত
থাকবো আমাদের মনোযোগ ও
স্মরণশক্তি ততবেশি ভালো কাজ করবে।
১. মনে রাখুন হতাশা আর উদ্বেগ আপনার
বোধশক্তি হ্রাস করে ফেলে।
আপনি পরীক্ষা নিয়ে যতবেশি
আতঙ্কিত হবেন আপনার মানসিক
অবস্থা ততবেশি খারাপের
দিকে যাবে। তাই
পরীক্ষা নিয়ে যতোটা পারেন শান্ত
থাকতে চেষ্টা করুন। যদি পরীক্ষার
কোন
প্রশ্ন আপনার কমন না পড়ে বা আপনার
মাথা থেকে প্রশ্নের উত্তর বের
হয়ে গিয়ে থাকে তাহলে উত্তেজিত
না হয়ে লম্বা শ্বাস নিন আর
ভালো করে দেখুন প্রশ্ন পত্রে হয়তো
এমন
কোন প্রশ্নও আছে যেটা আপনি সহজেই
উত্তর করতে পারেন। আর যদি একান্তই
কিছু মনে না পড়ে তাহলে কিছুটা সময়
নিয় আপনার সাধ্য মতো মনে করার
চেষ্টা করুন।
২.অনেকেই সারাবছর ঠিকঠাক
না পড়ে পরীক্ষার আগের রাত
বা পরীক্ষার দিন
সকালে সবটা একেবারে পড়ে শেষ
করতে চান, শেষ করার আপ্রাণ
চেষ্টা চালিয়ে যান।
একটা কথা ভুলে গেলে চলবে না
আপনার
পরীক্ষা ভীতির আরও একটি অন্যতম
কারণ
আপনার এই অভ্যাস হতে পারে।
আমাদের
মস্তিষ্ক এমন কোন বিশেষ
উপাদানে বানানো নয়
যাতে করে আপনার পরীক্ষার দিন
সকালের একবারের পড়ায় সমস্ত
পড়া একেবারে মনে থাকবে। তাই
পরীক্ষা ভীতি কমাতে প্রতিদিনের
পড়া প্রতিদিনই শেষ করার অভ্যাস
গড়ে তুলুন।
৩.পরীক্ষা ভীতির আরও একটি অন্যতম
কারণ
হতে পারে না বুঝে পড়া।
আমরা অনেকেই না বুঝে কেবল
পড়া আগাগোড়া মুখস্থ করার
প্রতি বেশি গুরুত্ব প্রদান করি। যার
প্রভাব পড়ে পরীক্ষার উপর,
দেখা যাচ্ছে পরীক্ষার সময় আপনার
মুখস্থ পড়া আর কোন কাজে আসছে না।
কিন্তু আপনি যদি পড়া বুঝে পড়তেন
তাহলে পরীক্ষার
হলে পড়া মনে না পড়লেও
আইডিয়া থেকে ঠিকই
লিখতে পারবেন। তাই
পরীক্ষা ভীতি কমাতে মুখস্থ পড়া বাদ
দিয়ে বুঝে পড়ার অভ্যাস করুন।
৪. পরীক্ষা ভীতি দূর করতে আপনার
আরও
একটি কার্যকর পদ্ধতি হলো যখনই
পড়তে বসবেন মনোযোগ কেবল পড়ার
প্রতি রাখতে চেষ্টা করবেন।
পড়তে বসার সময় টিভি, মোবাইল,
ইন্টারনেট, ফেসবুক সবটা বন্ধ রাখুন। আর
একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য টাইমার
ফিক্সড করে রাখুন। টাইমলি পড়া শেষ
করে একটা বিরতি নিন। দেখবেন
পড়া ভুলে যাওয়া সমস্যা আর
থাকছে না। আর যখন পড়া ভুলে যাবেন
না তখন পরীক্ষা ভীতিও থাকবে না।
৫.পরীক্ষা শেষ হয়ে যাওয়ার পর পুনরায়
শেষ হয়ে যাওয়া পরীক্ষা নিয়ে আর
বেশি মাথা ঘামাবেন না। হতেই
পারে আপনার বিগত পরীক্ষা খারাপ
হয়েছে কিন্তু
আগামী পরীক্ষাগুলো ভালো মতো
দিতে চাইলে খারাপটা নিয়ে বেশি
না ভাবায় উত্তম।
দেখা যাচ্ছে বেশি ভাবার
ফলে পরেরবার পরীক্ষা হলে আপনার
মধ্যে পরীক্ষা ভীতি কাজ করছে।
পরীক্ষা ভীতি দূর করতে পরীক্ষা
নিয়ে আপনার
মনের সমস্ত নেতিবাচক
চিন্তাগুলো ঝেড়ে ফেলে কেবল
পড়ার
প্রতি মনোযোগ স্থাপন করুন।

04/05/2015

স্পেশাল General Knowledge + মনে
রাখার টেকনিক

দক্ষিন আমেরিকার দেশগুলার নাম
মুখস্ত
বলতে পারবেন????
না পড়লে টেকনিক দেখুন-----------
# টেকনিক :- (BBC Vs APEC & Ur GP) এটা
মুখস্ত
করলেই-----
কেল্লাফতে!!!!!
ব্যাখ্যা :- --------------
B- ব্রাজিল
B- বলিভিয়া
C- কলম্বিয়া
V- ভেনিজুয়েলা
S- সুরিনাম
A- আর্জেন্টিনা
P- পেরু
E- ইকুয়েডর
C- চিলি
Ur- উরুগুয়ে
G- গায়ানা
P- প্যারাগুয়ে
না বুঝে থাকলে আরেকবার পড়ুন।
আশাকরি মনে থাকবে।

04/05/2015

মজার একটি গণিত ম্যাজিক! সকলের
অবশ্যয় ভালো লাগবে।

সবাই কেমন আছেন? আশা করি
ভালই। যাই হোক, আজ আমি আবার
ফিরে এসেছি একটি মজার ট্রিক
নিয়ে আপনাদের সামনে।
ট্রিকটি আপনাদের ভালো
লাগবে বলে আমার বিশ্বাস।
এটি হচ্ছে একটি গনিতের
ম্যাজিক। যদি সবাইকে একটু চমকে
দিতে চান অথবা বন্ধুবান্ধবদের
একটু আনন্দ দিতে চান তাহলে এই
ম্যাজিকটি নিঃসন্দেহে অনেক
ভালো হবে আপনার জন্য! তাহলে
শুরু করা যাকঃ
১) প্রথমে আপনার বন্ধুকে
যেকোনো একটি সংখ্যা মনে
মনে ধরে নিতে বলুন। যেমনঃ ১
২) এবার সেই সংখ্যাটার সাথে
তার পরের সংখ্যাটি যোগ
করতে বলুন। যেমনঃ ১ ধরলে ১ এর
পরবর্তী সংখ্যা ২ যোগ করতে
হবে, ১+২=৩ এভাবে!
৩) এবার যোগফলের সাথে ১২৩
যোগ করতে বলুন। যেমনঃ ৩+১২৩=
১২৬
৪) এবার উক্ত যোগফলকে ২ দিয়ে
ভাগ করতে বলুন। যেমনঃ ১২৬/২=
৬৩
৫) এবার ভাগফল থেকে আপনি
যেই সংখ্যাটি মনে মনে ধরতে
বলেছিলেন সেটি বিয়োগ করে
দিতে বলুন। যেমনঃ ৬৩-১
তাহলে এবার উত্তরটা হবে ৬২ !
আসল রহস্যঃ
আপনি যেই সংখ্যাই ধরুন না কেন
উত্তর সবসময় ৬২ হবে! এটাই
গণিতের ম্যাজিক। তবে, বারবার
একই জিনিস বললে ধরা খাওয়ার
সম্ভাবনা আছে! তাই
ম্যাজিকটা একজনকে একবারই
দেখান উচিত!
আশা করি সকলের কাছে ভালো
লেগেছে। আজ এই পর্যন্তই।
সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ
থাকবেন।

04/05/2015

POLICE , শব্দটির, পুর্নরুপ

P=POLITE O=OBEDIENT L=LOYAL
I=INTELLIGENT C=COURAGEOUS E=EFFICIENT

04/05/2015

বন্ধুকে প্রশ্ন করুন গণিতে

আপনার বন্ধুকে বলুন
গনিতের যে কোনে ৩টি সংখ্যা
নিয়ে এমন একটা সংখ্যা তৈরী
করতে যা যোগ করলে যত হবে গুন
করলে ঠিক একই হবে ?
.
আচ্ছা উওর টা আমিই বলে দেই
উওর হলো ১,২,৩

03/05/2015

বোর্ড পরীক্ষার সার্টিফিকেট
হারিয়ে গেলে কি করবেন ? দেখে নিন, ..

প্রথমে যা করবেনঃ সার্টিফিকেট,
নম্বরপত্র বা প্রবেশপত্র হারিয়ে গেলে
দেরি না করে এ বিষয়ে দ্রুত আপনার এলাকার
নিকটবর্তী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করবেন ।
জিডির একটি কপি অবশ্যই নিজের কাছে রাখবেন ।
এরপর যে কোনো একটি দৈনিক পত্রিকায় হারানো
বিজ্ঞপ্তি দিবেন । বিজ্ঞপ্তিতে নাম, শাখা,
পরীক্ষার কেন্দ্র, রোল নম্বর, পাসের সাল,
বোর্ডের নাম এবং কিভাবে আপনি সাটিফিকেট,
নম্বরপত্র অথবা প্রবেশ পত্র হারিয়েছেন তা
সংক্ষেপে উল্লেখ করবেন ।থানায় জিডি ও
পত্রিকায়
বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর আপনাকে যেতে
হবে যে বোর্ডের অধীনে পরীক্ষা
দিয়েছেন সেই শিক্ষা বোর্ডে।
শিক্ষাবোর্ডের ‘তথ্যসংগ্রহ কেন্দ্র’
থেকে আবেদনপত্র সংগ্রহের পর
নির্ভুলভাবে পূরণ করবেন ।
এরপর নির্ধারিত ফি সোনালী ব্যাংকের ডিমান্ড
ড্রাফটের মাধ্যমে বোর্ডের সচিব বরাবর জমা
দিবেন । টাকা জমা হওয়ার পর আবেদন কার্যকর হবে।
আবেদনপত্রের সঙ্গে মূল ব্যাংক
ড্রাফট, পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির কাটিং ও থানার জিডির
কপি জমা দিতে হবে হবে ।
আবেদনপত্রে যা পূরণ করতে হবেঃ
আবেদনপত্র পূরণের ক্ষেত্রে
প্রথমেই উল্লেখ করতে হবে আপনি
কোন
পরীক্ষার (মাধ্যমিক না উচ্চমাধ্যমিক) কী
হারিয়েছেন এবং কী কারণে আবেদন করছেন।
আবেদনপত্রের বিভিন্ন অংশে ইংরেজি
বড় অক্ষরে এবং বাংলায় স্পষ্ট অক্ষরে
পূর্ণ নাম, মাতার নাম, পিতার নাম, শিক্ষা
প্রতিষ্ঠানের নাম, রোল নম্বর, পাশের বিভাগ/
জিপিএ, শাখা, রেজিস্ট্রেশন নম্বর, শিক্ষাবর্ষ
এবং জন্মতারিখ সহ বিভিন্ন তথ্য লিখতে হবে।
পরবর্তী অংশে জাতীয়তা, বিজ্ঞপ্তি যে
দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে সেটির নাম ও
তারিখ এবং সোনালী ব্যাংকের যে শাখায় ব্যাংক
ড্রাফট করেছেন সে শাখার নাম, ড্রাফট নম্বর ও
তারিখ
উল্লেখ করতে হবে। আবেদনপত্রে
প্রতিষ্ঠান প্রধানের সুপারিশের প্রয়োজন
হবে। এতে তার দস্তখত ও নামসহ সিলমোহর থাকতে
হবে।
আর প্রাইভেট প্রার্থীদের আবেদনপত্র
অবশ্যই গেজেটেড কর্মকর্তার স্বাক্ষর
ও নামসহ সিলমোহর থাকতে হবে। নষ্ট হয়ে যাওয়া
সনদপত্র/নম্বরপত্র/ একাডেমিক
ট্রান্সক্রিপ্টের অংশ বিশেষ থাকলে
পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিতে হবে না বা থানায় জিডি
করতে হবে না।
এ ক্ষেত্রে আবেদনপত্রের সঙ্গে ওই
অংশ বিশেষ জমা দিতে হবে। তবে সনদে ও
নম্বরপত্রের অংশবিশেষে নাম, রোল
নম্বর, কেন্দ্র, পাশের বিভাগ ও সন, জন্ম
তারিখ ও পরীক্ষার নাম না থাকলে তা গ্রহণযোগ্য
হবে না। আর বিদেশি নাগরিক কে ব্যাংক
ড্রাফটসহ নিজ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের
মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।
কত টাকা লাগবেঃ সাময়িক সনদ, নম্বরপত্র,
প্রবেশপত্র ফি (জরুরি ফিসহ) ১৩০ টাকা। এ ছাড়া
ত্রি-নকলের জন্য ১৫০ টাকা এবং চৌ-
নকলের জন্য ২৫০ টাকা ব্যাংক ড্রাফটের
মাধ্যমে জমা দিতে হয়।

03/05/2015

[পড়াশোনা ] কম আলোয় পড়া ক্ষতিকর
কম আলো ও বেশি আলোয় দেখার জন্য
চোখের স্নায়ুকোষ আছে।
এদের নাম রড কোষ ও কোন কোষ। একেবারে
আলোহীন অবস্থায় কিছু দেখা যায় না।
কম আলোয় বা আধো অন্ধকারে রেটিনার রড
কোষগুলি আমাদের দেখার কাজে সাহায্য করে।
তবে সাধারণ দেখা আর পড়ার দেখার মধ্যে
পার্থক্য আছে। পড়ার সময় অক্ষরের
চেহারাগুলি স্পষ্ট হওয়া দরকার।
কোনো জিনিসকে ভালো ভাবে দেখার জন্যও
এটা প্রয়োজন। যা দেখছি বা পড়ছি তার সীমারেখা খুব
পরিষ্কার হওয়া নির্ভর করে আলোর উপর।
আর আলো কম হলে চোখ ‘একোমোডেশান’
নামে চোখের এক বিশেষ ক্ষমতাকে কাজে
লাগায়। কম আলোয় পড়লে রেটিনার রড কোষ কাজ
করলেই হবে না, প্রয়োজন হবে বেশি
একোমোডেশানের।
বেশি দিন একটানা একোমোডেশানের উপর বেশি
চাপ পড়লে চোখের স্থায়ী ক্ষতি হয়ে যায়।
তাই কম আলোয় বেশি দিন পড়া উচিত নয়

Location

Category

Telephone

Address


Howrah
Kolkata
711309

Other High Schools in Kolkata (show all)
Baranagar Narendranath Vidyamandir Alumni Baranagar Narendranath Vidyamandir Alumni
61, Kashinath Dutta Road
Kolkata, 700036

Page for all Present and Ex students of Baranagar Narendra Nath Vidyamandir .. Follow us on linkedin

Indian School of Aeromodelling Indian School of Aeromodelling
P-80 Basdroni
Kolkata, 700114

This is the best hobby for the children , they will learn how to make aircraft with balsa woods & fly. Aircraft will be control by Radio Control.

Children Academy High School Co-ed WBBSE Affiliated Children Academy High School Co-ed WBBSE Affiliated
1/1, Nabapally Link Road, Mondal Para, P.O- Joka
Kolkata, 700104

School Organisations, holidays and others.

Dum Dum Sree Arabinda Vidyamandir Dum Dum Sree Arabinda Vidyamandir
Kolkata, 700074

School

SOUTH POINT HIGH SCHOOL SOUTH POINT HIGH SCHOOL
82/7A Ballygunge Place
Kolkata, 700019

Soda lemon ginger pop, South Point on the top! This is a page run by alumni. It’s is NOT the official page of the School.

Ramakrishna Mission Ashrama, Baranagore Ramakrishna Mission Ashrama, Baranagore
37, G.L.T. ROAD, BARANAGAR
Kolkata, 700036

"ATMANO MOKSHARTHAM JAGAD HITAYA CHA" (FOR ONE'S OWN SPIRITUAL SALVATION AND FOR THE WELFARE OF THE WORLD) OFFICIAL FACEBOOK OF BARANAGORE R K M ASHRAMA.

Bidhannagar Municipal School Bidhannagar Municipal School
Salt Lake
Kolkata, 700106

Utpal Pawn School - U.P.S Utpal Pawn School - U.P.S
21/a S.N.Banerjee Road
Kolkata, 700021

All types of Fun,Smoking,Boozing except studying are allowed in this school.

Bayside Public School Bayside Public School
116/4, Cycle Factory Ground, Narayanpur
Kolkata, 700136

" For all parents the education of their children is of greatest importance. . At Bayside, we aim to provide holistic education for a changing world"