বাস্তবতা

হাজারো বেকার যুবকের আর্তনাদের "বাস্তবতা"র প্রতিচ্ছবি।

Operating as usual

21/12/2022

✪ What about you? - তোমার কি খবর?
✪ I am fond of you - তোমাকে আমার ভালো লাগে
✪ Are you getting me - তুমি কি আমার কথা বুঝতে পারছ ?
✪ It has been nice having you - আপনাকে পেয়েই ভাল লাগছিল
✪ The sooner, the Better - যত শিগগির, তত ভাল
✪ Next to nothing - বলতে গেলে কিছুই না
✪ I'm at a loss - কি বলব ভেবে পাচ্ছিনা!
✪ Come what may - যাই হোক না কেন
✪ Who else I have? - কে আর আমার আছে?
✪ Why you call me names? - আমাকে গালি দিচ্ছ কেন?
✪ Can’t you stay a little longer? - আর একটু থাকুন না।
✪ Why are you so up today?- তোমাকে এত খুশি খুশি লাগছে কেন?
✪ I’ll be glad if you come again. - আপনি যদি আবার আসেন, খুশি হব।
✪ Out of sight, out of mind. - চোখের আড়াল হলে মনের আড়াল হয়।
✪ It looks like I saw you somewhere - তোমাকে যেন কোথায় দেখেছিলাম
✪ I can’t tolerate you anymore. - আমি আর তোমাকে সহ্য করতে পারছি না
✪ Thank you very much indeed - প্রকৃতপক্ষে আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

21/12/2022

Where there = যেখানে.......সেখানে
💢 যেখানে গণতন্ত্র আছে সেখানে সুশাসন আছে
Where there is democracy there is good governance
💢 যেখানে মানুষ আছে সেখানে সভ্যতা আছে
Where there are people there is civilization.
💢 যেখানে লাইব্রেরী আছে সেখানে we`¨v আছে
Where there is library there is knowledge.
💢 যেখানে বন্ধু আছে সেখানে সহযোগিতা আছে
Where there are friends there is cooperation.
💢 যেখানে দারিদ্র্যতা আছে সেখানে অভিশাপ আছে
Where there is poverty there is curse.
💢 যেখানে জল আছে সেখানে জীবন আছে
Where there is water there is life.
💢 যেখানে মা আছে সেখানে ভালোবাসা আছে।
Where there is mother there is love.
💢 যেখানে অনুশাসন আছে সেখানে একতা আছে।
Where there is command there is unity.
💢 যেখানে সৃষ্টিকর্তা আছে সেখানে বিশ্বাস আছে।
Where there is Allah there is trust.
💢 যেখানে ফুল আছে সেখানে স্নিগ্ধতা আছে।
Where there is flower there is greasiness.

12/12/2022

অভিনন্দন জানাবেন যেভাবে…….
💠 Congratulations! - অভিনন্দন।
💠 Best wishes - শুভ কামনা।
💠 Felicitation- অভিনন্দন
💠 Congrats! You are the winner. - অভিনন্দন! তুমিই বিজয়ী।
💠 Congratulations! You deserve it! - অভিনন্দন! তুমি এটা পাওয়ার যোগ্য।
💠 Congratulations for your new job! - তোমার নতুন চাকরির জন্য অভিনন্দন।
💠 Congratulations on your promotion - তোমার পদোন্নতির জন্য অভিনন্দন।
💠 That was excellent. Congratulations! - ঐটা ছিল দারুণ! অভিনন্দন।
💠 Bravo! You have completed the task nicely.- সাবাস! তুমি কাজটা দারূণভাবে শেষ করেছো।
💠 I’m so glad! My heartiest congratulations! - আমি খুবই আনন্দিত! আমারের অন্তরের অন্তস্থল থেকে শুভেচ্ছা।

11/12/2022
10/12/2022

⭕ In the meantime (ইতিমধ্যে)
In the meantime, he arrived at the hospital
(ইতিমধ্যে তিনি হাসপাতালে পৌঁছেছিলেন)
⭕ Nick of time (সময়মতো)
You got here in the nick of time
(আপনি এখানে সময়মতো এসেছেন)
⭕ Out of date (সেকেলে)
Your fashion sense is out of date
(আপনার ফ্যাশন সেন্স সেকেলে)
⭕ Lame excuse (বাজে অজুহাত)
Don’t give me any lame excuses
(আমাকে কোনো বাজে অজুহাত দেবেন না)
⭕ Man of words (এক কথার মানুষ)
He Is a man of his word
(সে একজন এক কথার মানুষ)
⭕ On and on (ক্রমাগত)
On and on we walked looking for some water.
(আমরা পানির সন্ধানে ক্রমাগত হাঁটছিলাম।)

🥣 Idiom এর প্র্যাকটিক্যাল ব্যবহার
I have a lot on my plate.
বাংলা অর্থঃ আমি খুবই ব্যস্ত। (অন্য কোন কাজ করার সময় আপনার নেই)
কি ভরকে গেলেন! হ্যাঁ idiom ব্যবহার করে এভাবেই আপনি প্রকাশ করতে পারেন, আপনি খুব ব্যস্ত।
সহজে আমরা বলতে পারি, I’m very busy now, কিন্তু কেউ তার ব্যস্ততার ইংরেজি যদি এভাবে বলে I have a lot on my plate অথচ তার প্লেট বা খাবার কিছুই নেই। অতএব, জানা থাকলে আপনিও বুঝে ফেলতে পারবেন, সে আসলে খুবই ব্যস্ত। আর একটি উদাহরণ লক্ষ্য করুন Sima has a lot on her plate and that is why she is always busy.
ন্যাটিভ স্পিকাররা হরহামেশাই idiom ব্যবহার করে এভাবে কথা বলে। আপনিও কেন পিছিয়ে থাকবেন!

28/11/2022

গ্রিসের প্রখ্যাত দার্শনিক সক্রেটিস একটি কথা বলেছিলেন: The unexamined life is not worth living. কথাটির ভাবার্থ হচ্ছে, জীবনে চোখ বুজে, কোনো কিছু বিচার বিবেচনা না করে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত নয়। এই বিষয়টি নিয়ে আমি আগেও একটি পোস্টে কথা বলেছি। আজ আবারও এই একই বিষয়ে আরও কিছু লেখার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করছি।

বর্তমানে আমরা এমন একটি পৃথিবীতে বসবাস করছি যেখানে বিজ্ঞাপন আমাদের জীবনের একটি বড় অংশ নিয়ন্ত্রণ করছে। আমরা একটি শার্ট কিনছি বিজ্ঞাপন দেখে, একটি বাইক কিনছি বিজ্ঞাপন দেখে, নতুন নতুন কোর্সে ভর্তি হচ্ছি জাকজমকপূর্ণ বিজ্ঞাপন দেখে, এমনকি আমাদের সন্তানদের স্কুলে ভর্তি করছি বিজ্ঞাপন দেখে। শুধুমাত্র বিজ্ঞাপনের উপর নির্ভর করে একটি সিদ্ধান্ত নেয়া, এবং জীবনের ক্যাপিটাল বা মূলধন অপচয় করা একই কথা।

ছোট একটি উদাহরণ দিয়ে শুরু করি। ধরা যাক, আপনি একটি হলুদ শার্টের বিজ্ঞাপন দেখে, আর কিছু বিবেচনা না করে দোকানে যেয়ে একটি হলুদ শার্ট কিনে নিলেন। বাসায় এসে দেখলেন হলুদ শার্টে আপনাকে মানাচ্ছে না। হয়তোবা, শার্টের ক্ষেত্রে আপনি সেটা আবার দোকানে গিয়ে বদলে নিতে পারবেন, কিন্তু আপনি যদি আগেই একটু যাচাই-বাছাই করে কিনতেন তাহলে আপনার অনেক সময় বাচতো, এবং ভোগান্তি কম হতো। আর, শার্টের ক্ষেত্রে আপনি বদলে নিতে পারলেও, সবক্ষেত্রেই যে পারবেন সেটা কিন্তু নয়।

ধরা যাক, আপনি বিজ্ঞাপন দেখে আকৃষ্ট হয়ে, আপনার কষ্ট করে অর্জিত, অথবা জমানো সব টাকা খরচ করে একটা বাইক কিনলেন। কিন্তু, বাড়ি এসে দেখলেন বাইরে ফিটফাট আর ভিতরে সদরঘাট। আপনার তখন মাথায় হাত দেয়া ছাড়া উপায় থাকবে না। কিন্তু, আপনি যদি শুধু বিজ্ঞাপনের উপর ভরসা না করে বাইকটাকে ভালোমতো দেখেশুনে, খোজখবর নিয়ে কিনতেন তাহলে এক্ষেত্রেও আপনার সময় ও শ্রম উভয়ই বাচতো, এবং হয়তোবা আপনি ঐ একই মূল্যে আরও ভালো বাইক পেতেন।

আবার ধরা যাক, আপনি সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনো কোর্সের জমকালো বিজ্ঞাপন দেখে চোখ বুঝে কোর্সটি কিনে নিলেন। এরপর, কোর্স শুরুর পর বুঝলেন, কোর্সটি আসলে আপনার জন্য না। আপনার সম্পূর্ণ টাকাটাই লস্ যাওয়ার সমূহ সম্ভাবনা আছে সেক্ষেত্রে। এখন আপনি প্রশ্ন করতে পারেন, শার্ট বা বাইকের ক্ষেত্রে নাহয় যাচাই-বাছাই করে কেনার সুযোগ আছে, কিন্তু কোর্স যাচাই করবো কিভাবে?

অবশ্যই সুযোগ আছে। ইউটিউবে এখন যেকোনো, আবারও বলছি যেকোনো, বিষয়ের উপর ভিডিও আছে। ইউটিউব থেকে যেই বিষয়ের উপর আপনি কোর্স কিনতে চাচ্ছেন, সেই বিষয়ের উপর দু-একটি ভিডিও দেখে নিন। যদি মনে হয় কোর্সটি আপনার জন্য উপযুক্ত, তাহলে কোর্সটি কিনুন। নাহলে নয়।

গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, আপনাকে খুজে বের করতে হবে, আপনার জন্য উপযুক্ত বিষয়টি। আমি দর্শন বুঝি তার অর্থ এটা নয় যে দর্শন আপনার জন্য উপযুক্ত। বা আপনার বন্ধু ফিজিক্স ভালো বোঝে সেটার অর্থ এটা নয় যে আপনাকেও ফিজিক্সে সেরা হতে হবে।

একটি বিষয় মাথায় রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে, কেউই নিজের জিনিসকে খারাপ বলবে না, বরং সেরাই বলবে। একজন কাপড় ব্যবসায়ী কখনোই বলবে না যে, আমার দোকানের কাপড়ের মান খারাপ, আপনি কিনেন না। বরং, সে আপনাকে হাজারটা যুক্তি দেখাবে কেনানোর জন্য। আপনাকেই যাচাই করে, আপনার উপযুক্ত জিনিসটি বাছাই করে নিতে হবে।

পূর্বোল্লেখিত উক্তিটির সাথে আরো একটি কথা মনে রাখবেন: Be as you wish to seem. এই কথাটিও সক্রেটিসের। অর্থাৎ, আপনি তেমনি হন, যেমনটি আপনি হতে চান। বিজ্ঞাপন যেনো এটা ঠিক করে না দেয় যে আপনি কেমন হবেন, বরং আপনি ঠিক করবেন আপনি কেমন হবেন।

24/11/2022

আপনি কি নিয়মিত ফজরের সালাত মিস করেন?
আপনার কি ফজর পড়তে কষ্ট হয়,মসজিদে যেতে অনীহা লাগে?
উত্তর যদি হয়- হ্যা! তাহলে নিজের মুনাফিকতার ব্যাপারে ভয় করুন।

আপনি যদি ফজর এশার সালাতের ব্যাপারে উদাসীন থাকেন তাহলে আপনার সম্পর্কে রাসূল صلي الله عليه وسلم কি বলেছেন আসুন জেনে নিন।

আল্লাহর রাসূল صلي الله عليه وسلم বলেছেন, "মুনাফিকদের জন্য এশার এবং ফজরের সালাতের চাইতে ভারী কোন সালাত নেই।যদি তারা জানতো এতে কি পরিমাণ কল্যান রয়েছে তাহলে তারা হামাগুড়ি দিয়ে হলেও আসতো। আমার ইচ্ছা হয় যে আমি,মুয়াজ্জিনকে ইকামত দিতে আদেশ করি এবং কোন এক ব্যক্তিকে ইমামতি করতে নির্দেশ দিয়ে যারা সালাতের জন্য বের হয়নি আগুনের মশাল দিয়ে তাদেরকে জ্বালিয়ে দেই।
[সহীহ বুখারী,হাদিসঃ৬৫৭]

চিন্তা করুন, স্বয়ং আল্লাহর রাসূল এই দুই সালাতে গাফেলতকারীদের আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিপ্রায় করেছেন যাঁকে আল্লাহর 'রহমাতুল্লিল আলামীন' হিসেবে প্রেরণ করেছেন। তাহলে বুঝেন অবস্থা কতটা ভয়াবহ!

আরেক হাদিসে রাসূল صلي الله عليه وسلم বলেছেনঃ তোমাদের মধ্যে যারা সক্ষম তারা যেন দুটি সালাতে উপস্থিত হয়ঃএশা ও ফজরের সালাতে। যদি হামাগুড়ি দিয়ে আসতে হয় তবে সে যেন তাই করে [ সহীহ আত তারগীব, হাদিস নং ৪১২/৪১৮]

23/11/2022

আবেগ, উচ্ছ্বাস ও উদ্যম মানুষের গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ। আবেগ দিয়ে মানুষ অনেক কিছু অর্জন করতে পারে, আবার অপাত্রে আবেগ ঢেলে মানুষ নিজের ধ্বংসও ডেকে আনতে পারে।

‘খেলা’ মানসিক রিফ্রেশমেন্ট ও শরীর চর্চার একটি উপকরণ মাত্র। শরীয়ার সীমানায় থেকে তা থেকে উপকৃত হবেন একজন ঈমানদার। কিন্তু আখিরাত বিশ্বাসী মানুষ, যার প্রতিটি মুহূর্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং যার প্রতিটি কর্মকাণ্ড লিপিবদ্ধ হচ্ছে হিসাবের খাতায়, 'খেলা'র মতো তুচ্ছ বিষয়ে মেতে থাকা তাকে মানায় না।

খেলার নামে চলা এসব আসর যে বৃহৎ বাণিজ্যের বিশাল আয়োজন সে কথা কে না জানে? অথচ নিজের মূল্যবান আবেগকে আমরা সে বাণিজ্যের কাঁচামালে পরিণত করি। কতো সস্তা আমাদের আবেগ!

সফল মুমিন তো তিনি, যিনি এ জাতীয় অনর্থক বিষয় থেকে নিজেকে বিরত রাখবেন। তিরমিজীর প্রসিদ্ধ হাদীসের ভাষ্য—একজন ভালো মুসলিমের অন্যতম গুণ হলো, তিনি এমন কাজ পরিহার করে চলবেন, যে কাজ তার দুনিয়া ও আখেরাতের কল্যাণ সাধন করে না।

রসুল সা. ভবিষ্যদ্বাণী করে গেছেন, কেয়ামতের আগে চোখ ধাঁধানো ফিতনার প্লাবনে অনেক নামধারী মুসলমানের ঈমান ভেসে যাবে। মুসলমানের ঘরে জন্ম নিয়েও যারা ঈমান বা ঈমানী চেতনাহীন হয়ে যাবে, তারা কতই না দুর্ভাগা!

মহান আল্লাহ আমাদের ঈমান ও আমলের উপর অটল রাখুন, ফিতনা থেকে হেফাজত করুন।

23/11/2022

💢 ‘Goodbye’-এর সংক্ষিপ্ত রূপ ‘Bye’ যা শুধুমাত্রে
Spoken -এ ব্যবহার করা যায়, কিন্তু
রিটেন ইংলিশে অবশ্যই ‘Goodbye’ ব্যবহার করতে হবে।
✅ একইভাবে রিটেন ইংলিশে অনেকে & সিম্বলটি ব্যবহার করে, কিন্তু, রিটেন ইংলিশে & সিম্বল ব্যবহার না করে and ব্যবহার করতে হবে।
যেমন:
❌ Sima & Nipa are friends.
✅ Sima and Nipa are friends.

22/11/2022

আপনার কোন বন্ধুকে না পেলে এইসব গর্তে খোঁজ নিতে পারেন...

19/11/2022

নিষ্ক্রিয় গ্যাস গুলি নিষ্ক্রিয় কেন?

নিষ্ক্রিয় গ্যাস গুলির ইলেকট্রন বিন্যাস করলে দেখা যায় হিলিয়াম ব্যতীত অন্য নিষ্ক্রিয় গ্যাস গুলোর সর্ববহিঃস্থ শক্তিস্তরে অষ্টক পূর্ণ থাকে। নিষ্ক্রিয় মৌল সমূহের সর্বশেষ শক্তিস্তরে অষ্টক পুর্ণ থাকায় নিষ্ক্রিয় মৌল সমূহ যথেষ্ট স্থিতিশীল থাকে। ফলে এসব মৌল সমূহ সহজে কোন বিক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করে না। সর্ববহিঃস্থ স্তরে ইলেকট্রন দ্বারা অষ্টক পূর্ণ থাকে যা অত্যন্ত সুস্থিত। এ সুস্থিত ইলেকট্রন বিন্যাস ভাঙ্গতে অনেক শক্তির প্রয়োজন হয়। তাই স্বাভাবিক অবস্থায় নিষ্ক্রিয় মৌল সমূহ অন্য কোন মৌলের সাথে যুক্ত হয় না।

অর্থাৎ বহিঃস্থ স্তরে সুবিন্যাস্ত ইলেকট্রন বিন্যাসের কারণে নিষ্ক্রিয় মৌল সমূহ নিষ্ক্রিয় হয়।

এদের ইলেকট্রন বিন্যাসঃ
He (2) --> 1s²
Ne (10) --> 1s² 2s² 2p⁶
Ar (18) --> 1s² 2s² 2p⁶ 3s² 3p⁶
Kr (36) --> 1s² 2s² 2p⁶ 3s² 3p⁶ 3d¹º 4s² 4p⁶
Xe (54)--> [Kr ] 4d¹º 5s² 5p⁶
Rn (86)--> [Xe ] 4f¹⁴ 5d¹º 6s² 6p⁶

18/11/2022

Great

18/11/2022

আরবিতে শুভরাত্রি বলা হয় না, বলা হয় "তুসবিহুন আলা খায়ের" যার অনুবাদ হয় "আপনি একটি ভালো খবর পেয়ে জেগে উঠুন"। এবং আমি মনে করি আরবি উক্তিগুলো অত্যন্ত সুন্দর। 💚

17/11/2022

সাম্প্রতিক সম্মেলন

👉Cop 27 ✅✅
Time: 6 nov-18 nov
Place: Sharm el-sheikh, egypt
Motto: "Delivering for people and the planet"

👉G-20 summit✅✅
Time: 15 nov-16 nov
Place: Bali, Indonesia
Motto: "Recover together, recover stronger."

👉41st ASEAN summit
Time: 8 nov-13 nov
Place: Phonm penh, Cambodia.

👉5th BIMSTEC summit✅✅
Time: 30 march, 2022
Place: Colombo, Sri Lanka :
Motto: "Towards a resilient region, prosperous economies, healthy people."

International Women's day, 2022✅✅
Motto: "Gender equality today for a sustainable tommorow".
✍️✍️✍️
Azahar Akash

14/11/2022

কোন দল সমর্থন করবেন?

13/11/2022

England is the name of t20 world Cup 2022.

13/11/2022

Here is the winning moment of England.

13/11/2022

Beauty of MCG

Photos from বাস্তবতা's post 11/11/2022

Photos from বাস্তবতা's post

10/11/2022

গ্রন্থ সমালোচনা: চিলেকোঠার সেপাই
লেখক: আখতারুজ্জামান ইলিয়াস

ঊনসত্তরের গণঅভ্যূত্থানের প্রেক্ষাপটে রচিত উপন্যাস চিলেকোঠার সেপাই। এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের পূর্ববর্তী রূপটি ফুটে উঠেছে। যেখানে ব্যক্তি মানুষকে ছাপিয়ে ইতিহাস ও জনপদই নায়ক হয়ে উঠেছে। অভ্যুত্থানের প্রধান শক্তি ছিল শ্রমজীবী মেহনতি মানুষ। আন্দোলন পরবর্তী সময়ে এসব শ্রমজীবি মানুষ কিভাবে প্রতারিত ও বঞ্চিত হয়েছে এবং বামপন্থীদের দোদুল্যমানতা আর ভাঙনের ফলে রাজনীতির ময়দান থেকে পশ্চাদপসারণ ইত্যাদি
বর্ণনার এক চমৎকার আখ্যান চিলেকোঠার সেপাই। অনেক সাহিত্যবোদ্ধার কাছে এটিই আখতারুজ্জামান ইলিয়াসের শ্রেষ্ঠ কৃতি।
উপন্যাসের প্রধান চরিত্র ওসমান। যার ছোটবেলায় ডাকনাম ছিল রঞ্জু (Ronju)।
আবার সে বর্তমানে যেখানে থাকে সেখানকার অন্য এক ভাড়াটিয়া পরিবারের কিশোর ছেলের নামও রঞ্জু।
এই রঞ্জুর মধ্যে সে আত্মপ্রতিকৃতি আবিষ্কার করে ও অতীত কল্পনা
করে। ওসমানের পিতার মৃত্যুর স্বপ্নদৃশ্য দিয়ে উপন্যাসের শুরু। স্বপ্নে সে
বাল্যকালে চলে যায়। সবাই তাকে রঞ্জু বলে ডাকছে। উপন্যাসের অন্যান্য চরিত্র ওসমানের বন্ধু আনোয়ার, আলতাফ এবং শ্রেণীসংগ্রামের প্রতিনিধি বিপ্লবী খিজির ওরফে হাড্ডি খিজির।
এই ওসমান দেশবিভাগের সময় উদ্বাস্তু হয়ে ঢাকায় আসে। সে এতোটাই ছিন্নমূল যে ঢাকা শহুরের এক ঘিঞ্জি গলির চিলেকোঠায় তাকে বাস করতে হয়েছে। সে এক অফিসের জুনিয়র কর্মকর্তা। তার বন্ধু বাম রাজনীতির কর্মী আনোয়ার এবং ডানপন্থি আলতাফ। তাদের সাথে ওসমান আইয়ুব বিরোধী মিছিলে যায়, মিটিংয়ে যায়, আলোচনায় বসে। রাজনৈতিক নেতা থেকে শুরু করে শ্রমিক, রিক্সাওয়ালার সাথেও তার যোগাযোগ রয়েছে। এভাবে সবকিছুতে থেকেও ওসমান যেন কোন কিছুতে নেই। গণঅভ্যুত্থানের মধ্যে থেকেও সে এর সাথে জড়িত নয়।
অফিসে যেতে সে বাহাদুর শাহ পার্ক বা পল্টনে জনসভা দেখে, রাজনীতিতে সক্রিয় বন্ধুদের কাছ থেকে আন্দোলন সংগ্রামের কথা শোনে কিন্তু কোন কিছুতে জড়াতে পারে না। তার চিন্তা জগৎ ফেলে আসা বাবার দিকে, দোতলার ভাড়াটে মকবুল হোসেনের একমাত্র মেয়ে রানুর দিকে। যে কিনা রঞ্জুর বড় বোন। ওসমান যেন চিলেকোঠার
রুমে বন্দী।
তবে তার মধ্যেও কিছু চিন্তা কাজ করে। রানুর বড় ভাই আবু তালেব
পুলিশের গুলিতে নিহত হওয়া ও দিনরাত আন্দোলনের ধারবাহিকায় ওসমানেরও ঘুম কমে যায়। একসময় সে দিবাস্বপ্ন দেখে। উপন্যাসের শেষাংশে দেখা যায় ওসমান সিজোফ্রেনিয়া রোগীতে পরিণত হয় ও মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে।
সে ভুলভাল বলে ও অসঙ্গত চিন্তা করে। ওসমানের আত্মপ্রেম, ইনসমনিয়ায় আক্রান্ত হওয়া এবং চিলেকোঠায় বন্দী থাকা-
এসবের মধ্য দিয়ে আন্দোলন পরিস্থিতিতে মধ্যবিত্তের উদাসীনতা ও আন্দোলন- বিপ্লবে তাদের সক্রিয় অংশগ্রহণের অভাবকেই তুলে ধরেছেন। বিপরীতে দেখিয়েছেন একেবারে প্রান্তের মানুষ হাড্ডিখিজির, ওসমানের বাড়ীওয়ালার কাজের লোক। সে কখনো ট্যাক্সি বা রিক্সা চালায় কখনো মালিকের হুকুম তালিম করে।
এই হাড্ডি খিজির জীবন-সংসার, ছেলে-বউয়ের কথা চিন্তা না করে আন্দোলনে সরাসরি অংশগ্রহণ করে, যেকোন ডাকে সাড়া দেয়। তার প্রথম ক্ষোভ তার মুনিব রহমতউল্লাহর উপর যে আইয়ুব খানের সমর্থক। শেষ পর্যন্ত হাড্ডি খিজির আন্দোন করতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারায়।
উপন্যাসের বেশির ভাগ জায়গা দখল করে আছে ওসমান। কিন্তু উপন্যাসটির মূল ঘটনাবলীর সাথে তার সম্পৃক্ততা নেই বললেই চলে। সে কেবল অবলোকন করে যায়। তার বন্ধু আনোয়ার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য গ্রামে যায়। তার এই যাওয়াকে কেন্দ্র করে গ্রামীণ জনজীবনের বিশ্লেষণাত্মক বর্ণনা রয়েছে এবং শহরের উত্তাল রাজনীতির ঢেউ গ্রামীণ জীবনকে কীভাবে দোলা দেয় তা সহজভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে দক্ষতার সাথে।
এ বর্ণনায় আমরা বগুড়া জেলা, তথা উত্তরবঙ্গের
তৎকালীন সমাজ পরিস্থিতির পরিচয় পাই। পাশাপাশি পরিচয় পাই গ্রামের সাহসী চরিত্রের। ওসমান চরিত্রের মাধ্যমে লেখক সুবিধাভোগী মধ্যবিত্তের চরিত্র ফুটিয়ে তুলেছেন। মধ্যবিত্তরা উপরে উঠতে চায়, নিচে নামতে চায় না। ফলে আন্দোলন সংগ্রামে তাদের কাছে পরিপূর্ণ আত্মোৎসর্গ আশা করা যায় না। লেখক এটাও বুঝাতে চেয়েছেন যে হাড্ডি খিজিরদের মত নিম্নবিত্তদের দ্বারাই বিপ্লব সংগঠিত হয়। কারণ তাদের আর নিচে নামার কিছু নাই।
আনোয়ার ও আলতাফের কথোপকথনের মাধ্যমে লেখক অনেক রাজনৈতিক জটিলতাকে মুক্তি দিতে চেয়েছেন। গল্পের ফোকাস কখনো ছিল হাড্ডি খিজিরের উপর। কখনো বা আনোয়ারের উপর। তবে পুরো গল্পে অস্তিত্ব ছিল ওসমানের।
তাছাড়া ঊনসত্তর যে স্বাধীনতা আন্দোলনকে চূড়ান্ত রূপ দিয়েছে, হাজার বছরের বাংলার শোষণ থেকে মুক্তির সুরহা দিয়েছে লেখক তা উপন্যাসের মাধ্যমে দেখিয়েছেন। ‘চিলেকোঠার সেপাই’কে একদিকে রাজনৈতিক উপন্যাস বলা যায়; কারণ এর মাধ্যমে লেখকের রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি ফুটে উঠেছে। আবার ঐতিহাসিক উপন্যাস বললেও ভুল হবে না। কারণ লেখক ইতিহাস থেকে এর উপজীব্য গ্রহণ করেছেন।
তবে বলা যায় বাংলা ভাষায় ঐতিহাসিকতা ও রাজনীতি এতটা তীব্রভাবে খুব কম উপন্যাসেই রয়েছে। আখতারুজ্জামানের লেখার প্রধান শক্তি হল ভাষা। বিষয়ের প্রেক্ষিত ও চরিত্র ফুটিয়ে তোলার প্রয়োজনে তাঁর ভাষা হয়ে উঠেছে অনন্য। আখতারুজ্জামান মানুষকে ভালবাসতেন যা তাঁর লেখায় স্পষ্ট। ব্যক্তির জীবন পরিসরকে কিংবদন্তী, ইতিহাস ও সমকালের এমন এক পটে মেলে ধরেছেন যে তাঁর প্রতিটি লেখাই হয়ে উঠেছে আমাদের জীবনের অস্তিত্বগাঁথা, একই সাথে বর্তমান ওভবিষ্যতের মহাকাব্যিক আলোচনা।

06/11/2022

খেলা দেখতে প্রস্তুত আছেন তও....
এবারে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবল (বিপিএল) এর ম্যাচ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামে।

05/11/2022

Astronomers have found the closest black hole known to Earth, just 1,600 light-years away. It's dormant — at least for now.

Photos from বাস্তবতা's post 29/10/2022

আশা করি Paragraph নিয়ে কোন সমস্যা হবে না। মাত্র ৪ টি Paragraph মুখস্থ করলেই ৮০ টি Paragraph লেখা যাবে।

29/10/2022

#গ্রন্থ_সমালোচনা
প্রিলি+লিখিত প্রস্তুতি
২ মিনিট সময় নিয়ে অবশ্যই পড়ুন।

বিসিএস লিখিত পরীক্ষার এক্সামে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে গ্রন্থ-সমালোচনা। আবার ইদানীং বিখ্যাত উপন্যাসগুলোর চরিত্র থেকে প্রিলিতে প্রশ্ন আসতে দেখা যাচ্ছে। গল্প/উপন্যাস না পড়া থাকলে চরিত্র মনে রাখা বেশ কঠিন। এক্ষেত্রে উপন্যাসের কাহিনি জানলে একসাথে প্রিলি এবং লিখিত গ্রন্থ সমালোচনার জন্য কাজে দিবে।

গ্রন্থ: নিষিদ্ধ লোবান
লেখক: সৈয়দ শামসুল হক

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধকে উপজীব্য করে রচিত বাংলা
উপন্যাসগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সৈয়দ শামসুল হকের ‘নিষিদ্ধ লোবান’।
উপন্যাসে লেখক মুক্তিযুদ্ধের বিশৃঙ্খল পটভূমিতে বিলকিস নামের এক নারীর সংগ্রামের কাহিনিকে কেন্দ্র করে দেশের সর্বস্তরের মানুষের মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণের খণ্ডচিত্র তুলে ধরেছেন।

উপন্যাসটি উত্তরাঞ্চলের পটভূমিতে রচিত ।
এ উপন্যাসের প্রধান চরিত্র বিলকিস ও পাকিস্তানী মেজর সরফরাজ।

বিলকিস মুসলমান ঘরের সন্তান। উপন্যাসের শুরুতেই দেখা যায়, মা, ভাই, বোন ও বোনের সন্তানদের দেখার জন্য বিলকিস একাকী ঢাকা থেকে নিজগ্রাম রংপুরের জলেশ্বরীর দিকে ট্রেনে যাত্রা করে। কিন্তু তারই ছোট ভাই খোকনের দল এদিকে একটি রেল ব্রিজ উড়িয়ে দেওয়ায় নির্দিষ্ট স্টেশনে পৌঁছার আগেই তাকে ট্রেন থেকে নামতে হয়। দৃঢ় চিত্ত বিলকিস পাঁচ মাইল পথ হেঁটেই এগিয়ে চলে বাড়ীর পথে।

খোকন বাহিনীর এক তরুণ মুক্তিযোদ্ধা সিরাজ বিলকিসের যাত্রাসঙ্গী হয়। বাড়ি গিয়ে নানা ঘটনার পাশাপাশি নিজের বাড়ী লুট হওয়া ও তার মামার উপর মিলিটারি-রাজাকারদের নির্যাতন দেখে শিউরে উঠে। অতঃপর ডামাডোলে জীবনের সকল সূত্র হারানো বিলকিস একমাত্র ভাই খোকনকে দেখবার তীব্র আকাঙ্ক্ষা নিয়ে অপেক্ষায় থাকে।

কিন্তু দুর্ভাগ্য তার, এরই মধ্যে মিলিটারি-বিহারীরা হত্যা করে খোকনকে। তার সাথে আরো অনেক লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। মিলিটারিরা
ঘোষণা দেয় কেউ তাদের দাফন করতে পারবে না। তখন বিলকিস প্রতিজ্ঞা করেভাইয়ের লাশ দাফন করার।

উপন্যাসের শেষ দিকে খোকনের লাশ দাফন করতে গিয়ে পাকিস্তানী মেজরের হাতে ধরা পরে বিলকিস আর সিরাজ। বিলকিসকে মেজর তার রুমে নিয়ে নানাভাবে অপমান করে। বিলকিসকে স্বেচ্ছায় তার সাথে শারিরীক সম্পর্ক করতে বলে। বিলকিস কোন উত্তর না দিয়ে নিশ্চুপ দাঁড়িয়ে থাকে। একপর্যায়ে সিরাজকেও মেজরের রুমে নিয়ে আসা হয়, তখনই জানা যায় সিরাজ আসলে হিন্দু।

তার প্রকৃত নাম প্রদীপ। প্রদীপকে গুলি করে হত্যা করে মেজর বিলকিসের সাথে। শারিরীক সম্পর্ক করতে চায়।
তখন বিলকিস বলে প্রদীপের সৎকার করে সে নিজের ইচ্ছায়ই মেজরকে তৃপ্ত করবে। মেজর রাজি হয়। পরদিন খুব সকালে হিন্দু রীতি অনুযায়ী চিতা প্রস্তুত করে প্রদীপের সৎকারের ব্যবস্থা করা হয়।
প্রদীপের সেই চিতায় বিলকিস পাকিস্তানী সেনাকে জড়িয়ে ধরে ঝাঁপ দেয়। নিজের সম্ভ্রমরক্ষার জন্য সে আত্মহননের পথ বেছে নেয়।

বিলকিস নিজে তো আত্মাহুতি দেয়ই সেই সাথে দেশের সম্ভ্রম রক্ষার জন্য একজন বর্বর পাক সেনাঅফিসারকে শেষ করে দেয়।
উপন্যাসটিতে দেখানো হয়েছে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশে বেশির ভাগ মানুষেরই প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ অবদান ছিল। তখন কোন জাত পাত ছিল না, হিন্দু-মুসলিম ছিল না। সবাই সবাইকে সাহায্য করেছে প্রাণের মায়া ত্যাগ করে। অনেকন হিন্দু পরিবাকে আশ্রয় দিয়েছে কট্টর মুসলিম পরিবার।

পাকিস্তানী হানাদাররা কতটা ভয়ংকর ছিল এবং ভিন্ন ধর্মের মানুষের প্রতি তাদের মনোভাব কেমন ছিল তার স্পষ্ট বর্ণনা আছে উপন্যাসটিতে।

একজন বাঙালী নারী ও হিন্দু যুবকের চরিত্র চিত্রায়নের মাধ্যমে লেখক একাত্তরে নারী ও হিন্দুদের ওপর পাকিস্তানী হায়েনাদের অত্যাচারের বীভৎস রূপ তুলে ধরেছেন। বাঙালি নারী মাত্রই তাদের কাছে ছিল ভোগপণ্য।

তারা বলত- ‘তোমাদের রক্ত শুদ্ধ করে দিয়ে যাব, তোমাদের গর্ভে খাঁটি পাকিস্তানী রেখে যাব।' আর হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের দেখা মাত্রই গুলি করে ‘ভারত’ পাঠিয়ে দিতে হবে, পাকিস্তানি মেজরের মুখ থেকে এই ধরনের সংলাপ বের করে এনে লেখক সামাগ্রিকভাবে একাত্তরে পাকিস্তানী হায়নাদের মনোভাব ফুটিয়ে তুলেছেন। আর প্রদীপ ছেলেটির সিরাজ নাম ধারণ করাকে লেখক কৌশল হিসেবে দেখিয়েছেন।
তখনকার পরিস্থিতিতে জীবনের প্রয়োজনে সেটি দরকার ছিল।

উপন্যাসটি খুব দীর্ঘ নয়। দুই আড়াই দিনের গল্প। কিন্তু এর সম্মোহনী শক্তি
পাঠককে একটানে নিয়ে যাবে শেষের পাতায়। সবমিলিয়ে বলা যায় উপন্যাসে একাত্তরে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর নৃশংসতার সামগ্রিক বাস্তব চিত্র প্রতিফলিত হয়েছ।

Photos from বাস্তবতা's post 28/10/2022

💥আজকের বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক পদের পরীক্ষার প্রশ্ন।সবার আগে নির্ভুল সমাধান পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

22/10/2022

★পৃথিবীর সবচেয়ে পুরাতন স্মৃতিস্তম্ভ কি?
ক. পিরামিড খ. তাজমহল
গ. আইফেল টাওয়ার গ. কুতুব মিনার

Photos from বাস্তবতা's post 22/10/2022

Exam questions

22/10/2022

All the match schedule in World Cup 2022.

21/10/2022
20/10/2022
19/10/2022

May এর বহুমূখী ব্যবহার
Formula-1: কোন কাজের সম্ভাবনা বুঝাতে ইংরেজিতে May বসে।
✪ আজ বৃষ্টি আসতে পারে-- It may rain today.
✪ সে আজ যেতে পারে-- He may go today.
✪ তুমি এটা নিতে পারো - You may take this
✪ আপনি তাকে কল করতে পারেন - You may call him
✪ আপনি আমাকে অনুসরণ করতে পারেন - You may follow me
✪ এটি কয়েক মিনিট সময় নিতে পারে - It may take a few minutes
Formula-2: অনুমতি চাওয়া বুঝাতে may বসে।
✪ আমি কি তোমায় সাহায্য করতে পারি?-- May i help you?
✪ আমি কি ভিতরে আসতে পারি?-- May i come in?
✪ আমি এখন বাড়ি যেতে পারি? - May I go home now?
✪ আমি কি আপনার মোবাইল ব্যবহার করতে পারি? - May I use your mobile?
Formula-3: ইচ্ছা বা প্রার্থনাসূচক বাক্যে May বসে।
✪ আল্লাহ তোমার মঙ্গল করুক! - May God bless you!
✪ তুমি দীর্ঘজীবি হও--May you live long.
✪ জীবনে তোমার উন্নতি হউক--May you prosper in life.
✪ তুমি জীবনে সুখি হও - May you be happy in life.
✪ রোগীটি সুস্থ হোক –May the patient come round.
Formula-4: কোন ব্যক্তি বা বস্তুর ক্ষেত্রে "হতে পারে" বুঝালে may be বসে।
✪ কলমটি দামী হতে পারে - The pen may be costly.
✪ গাছটি লম্বা হতে পারে - The tree may be tall.
✪ এটা গরম হতে পারে - This may be hot
✪ সে রাগ হতে পারে - He may be angry
✪ রিনা খুশি হতে পারে - Rina may be happy

Videos (show all)

🥰
কুরবানীঃ আমাদের করণীয় ও বর্জনীয় (১.৫০ মিনিট)
You can check your nurve system.
Madrasah Darul Hadith Arabia Al Qawmiya
Video Documentary 2022.
Rain
আমাদের হিফজ বিভাগ
Rain
Alhamdulillah
Abdur razzak bin yusuf max Pro.
🥰🥰🥰
Benefit of early marriage

Location

Website

Address


Dhaka
Tangail
1920

Other Tangail schools & colleges (show all)
Environmental Science Environmental Science
Tangail, 21000

Environmental Science is one of the best subject in Life Science. You can get most of the posts abou

Bindu Basini Govt. Boys' High School Bindu Basini Govt. Boys' High School
Kazi Nazrul Islam Sarani Road
Tangail, 1900

Bindu Basini Govt. Boys’ High School commonly referred to as B. B. Boys is a public boys' high sc

Darul Uloom Hazrat Ali R. Qawmi Madrasah Darul Uloom Hazrat Ali R. Qawmi Madrasah
নগর জালফৈ বাইপাস
Tangail, ১৯০০

এটি একটি দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

First Tech First Tech
Tangail Sadar
Tangail, 1900

মাদরাসাতুন নুজুম আল-ইসলামিয় মাদরাসাতুন নুজুম আল-ইসলামিয়
Tangail

কুরআন সুন্নাহর আলোকে আলোকিত মানুষ গড?

Cantonment Board High School, Ghatail Cantonment Board High School, Ghatail
Tangail

It is a renowned school in Ghatail

Madinatul Ulum Madrasah Madinatul Ulum Madrasah
Hatimara, Sagordighi, Ghatail
Tangail, 1984

মদিনাতুল উলূম মাদ্রাসা,সাগরদিঘী ঘাটা

Satihati g r m Dakhil Madrasah - 2015 Satihati g r m Dakhil Madrasah - 2015
Satihati, Kalihati
Tangail

MBSTU Tuition Service MBSTU Tuition Service
Santosh
Tangail

Hi, To get Home Tutor, feel free to call us 01568090754(Guardian only) Thank you so much.

Uniaid মধুপুর শাখা Uniaid মধুপুর শাখা
Madhupur
Tangail, 1996

We are always ready to help

Bharateswari Homes Bharateswari Homes
Mirzapur
Tangail, 1940

an institution of Kumudini Welfare Trust of Bengal (BD) Ltd.

RYB Electric by lalshobuj RYB Electric by lalshobuj
Tangail

plz, sobai video gulo dekhun, jara notun a Electric kaj shikhtesen,.