Islamic dawah foundation-IDF

ইসলামিক দাওয়া ফাউন্ডেশন

Operating as usual

Photos from Abdus Salam Nesary's post 13/11/2022

Photos from Abdus Salam Nesary's post

07/11/2022

একজন মুসলিম হার্টের ডাক্তারের অবাক করা ঘটনা

07/11/2022

তারিক জামিল সাহেবের জর্ডান সফরের, অসাধারণ শিক্ষণীয় একটি ঘটনা ! Abrarul Haque Asif

06/11/2022

সালাতের মধ্যে হাত তোলা (রাফ‘উল ইয়াদাইন) যাবে কি ?? আল্লামা তারেক মনোয়ার | Allama Tareq Monwar

29/10/2022

গো*পন তথ্য ফাঁ*স তারেক মুনোয়ার আহলে হাদিস।

25/10/2022

- মানুষের মন জয় করার কিছু বাক্য।~🤲🥀

22/10/2022

সালাতের মধ্যে হাত তোলা (রাফ‘উল ইয়াদাইন) যাবে কি ?? আল্লামা তারেক মনোয়ার | Allama Tareq Monwar

21/10/2022

মহিলা এবং পুরুষের নামাজে কি কি পার্থক্য?

13/10/2022

যারা ঈদে মিলাদুন্নবী বিশ্বাস করে না তাদের বউ অটো তালাক

হযরত আদম (আঃ) এর সৃষ্টির বর্ননা · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION 12/10/2022

হযরত আদম (আঃ) এর সৃষ্টির বর্ননা · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION

প্রথম মানুষ হযরত আদম (আঃ) এর সৃষ্টির বর্ননা সুরা বাকারার ৩০-৩৯ নং আয়াতের ঘটনা সুরা বাকারা আয়াত নং ৩০ وَ اِذۡ قَالَ رَبُّکَ لِلۡمَلٰٓئِکَۃِ اِنِّیۡ جَاعِلٌ فِی الۡاَرۡضِ خَلِیۡفَۃً ؕ قَالُوۡۤا اَتَجۡعَلُ فِیۡهَا مَنۡ یُّفۡسِدُ فِیۡهَا وَ یَسۡفِکُ الدِّمَآءَ ۚ وَ نَحۡنُ نُسَبِّحُ بِحَمۡدِکَ وَ نُقَدِّسُ لَکَ ؕ قَالَ اِنِّیۡۤ اَعۡلَمُ مَا لَا تَعۡلَمُوۡنَ অর্থঃ আর স্মরণ করুন, যখন আপনার রব ফেরেশতাদের বললেন, নিশ্চয় আমি যমীনে খলীফা সৃষ্টি করছি', তারা বলল, আপনি কি সেখানে এমন কাউকে সৃষ্টি করবেন যে ফাসাদ ঘটাবে ও রক্তপাত করবে?...

হযরত আদম (আঃ) এর সৃষ্টির বর্ননা · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION প্রথম মানুষ হযরত আদম (আঃ) এর সৃষ্টির বর্ননা সুরা বাকারার ৩০-৩৯ নং আয়াতের ঘটনা সুরা বাকারা আয়াত নং ৩০ وَ اِذۡ قَالَ رَبُّ...

01/10/2022
সুরা ফাতিহা আয়াত ২ এর তাফসীর · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION 29/09/2022

সুরা ফাতিহা আয়াত ২ এর তাফসীর · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION

সুরা ফাতিহা আয়াত ২ ১:২ اَلۡحَمۡدُ لِلّٰهِ رَبِّ الۡعٰلَمِیۡنَ (২) সমস্ত প্রশংসা সারা জাহানের প্রতিপালক আল্লাহর জন্য। আরবী ভাষায় হামদ অর্থ নির্মল ও সম্ভ্রমপূর্ণ প্রশংসা। গুণ ও সিফাত সাধারণতঃ দুই প্রকার হয়ে থাকে। তা ভালও হয় আবার মন্দও হয়। কিন্তু হামদ শব্দটি কেবলমাত্র ভাল গুণ প্রকাশ করে। অর্থাৎ বিশ্ব জাহানের যা কিছু এবং যতকিছু ভাল, সৌন্দর্য-মাধুর্য, পূর্ণতা মাহাত্ম দান ও অনুগ্রহ রয়েছে তা যেখানেই এবং যে কোন রূপে ও যে কোন অবস্থায়ই থাকুক না কেন, তা সবই একমাত্র আল্লাহ তা'আলারই জন্য নির্দিষ্ট।...

সুরা ফাতিহা আয়াত ২ এর তাফসীর · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION সুরা ফাতিহা আয়াত ২ ১:২ اَلۡحَمۡدُ لِلّٰهِ رَبِّ الۡعٰلَمِیۡنَ (২) সমস্ত প্রশংসা সারা জাহানের প্রতিপালক আল্লাহর জন্য। আরবী ভাষ.....

ইনফাক ফী সাবিলিল্লাহ · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION 22/09/2022

ইনফাক ফী সাবিলিল্লাহ · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION

সুরা তওবা আয়াত -১১১ اِنَّ اللّٰهَ اشۡتَرٰی مِنَ الۡمُؤۡمِنِیۡنَ اَنۡفُسَهُمۡ وَ اَمۡوَالَهُمۡ بِاَنَّ لَهُمُ الۡجَنَّۃَ নিঃসন্দেহে আল্লাহ বিশ্বাসীদের নিকট থেকে তাদের প্রাণ ও তাদের ধন-সম্পদসমূহকে বেহেশ্তের বিনিময়ে ক্রয় করে নিয়েছেন ইনফাক ফী সাবিলিল্লাহ শব্দটির অর্থ: আল্লাহর পথে খরচ । এখন প্রশ্ন হচ্ছে আল্লাহর পথে খরচ বলতে কি বুঝানো হচ্ছে? এক কথায় আল্লাহ খুশী হন এমন কাজে অর্থ ব্যয় করাই হচ্ছে ইনফাক ফী সাবিলিল্লাহ বা আল্লাহর পথে খরচ। আল্লাহকে খুশী করার জন্য, নিজের প্রয়োজনে, পরিবার পরিজন, আত্মীয় স্বজন, সমাজ ও মানবতার কল্যাণ এবং সর্বপরি আল্লাহর দ্বীন এর প্রচার, প্রসার ও প্রতিষ্ঠার কাজে যে অর্থ ব্যয় হয় সবই ইনফাক ফী সাবিলিল্লাহর অন্তর্ভুক্ত। এক্ষেত্রে শর্ত হচ্ছে খরচ হতে হবে শুধুমাত্র আল্লাহকে খুশী করার জন্য। খ্যাতিলাভ, প্রদর্শনেচ্ছা কিংবা জাগতিক কোন স্বার্থে দ্বীন প্রতিষ্ঠার কোন কাজে অর্থ খরচ হলেও তা ইনফাক ফী সাবিল্লিাহ হিসেবে আল্লাহর কাছে গৃহীত হবেনা। অপরদিকে আল্লাহকে খুশী করার জন্য নিজের বা পরিবার পরিজনের জন্য খরচ করা হলেও ইনফাক এর সওয়াব আল্লাহ দান করবেন।...

ইনফাক ফী সাবিলিল্লাহ · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION সুরা তওবা আয়াত -১১১ اِنَّ اللّٰهَ اشۡتَرٰی مِنَ الۡمُؤۡمِنِیۡنَ اَنۡفُسَهُمۡ وَ اَمۡوَالَهُمۡ بِاَنَّ لَهُمُ الۡجَنَّۃَ নিঃসন্দেহে আল্লাহ বি.....

08/09/2022

মসজিদে ইমামদের নামাযে তাড়াহুড়া নিয়ে যা বললেন, আবু ত্ব হা মুহাম্মাদ আদনান।

বিসমিল্লাহ এর নাম ও ইতিহাস জানুন · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION 01/09/2022

বিসমিল্লাহ এর নাম ও ইতিহাস জানুন · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION

১:১ بِسۡمِ اللّٰهِ الرَّحۡمٰنِ الرَّحِیۡمِ ১. রহমান, রহীম আল্লাহর নামে। ১. সাধারণত আয়াতের অনুবাদে বলা হয়ে থাকে, পরম করুণাময়, দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি। ‘বিসমিল্লাহ’র পূর্বে ‘আক্বরাউ’ ‘আবদাউ’ অথবা ‘আতলু’ ফে’ল (ক্রিয়া) উহ্য আছে। অর্থাৎ, আল্লাহর নাম নিয়ে পড়ছি অথবা শুরু করছি কিংবা তেলাঅত আরম্ভ করছি। প্রথমে লক্ষণীয় যে, আয়াতে আল্লাহর নিজস্ব গুণবাচক নামসমূহের মধ্য হতে ‘আর-রাহমান ও আর-রাহীম’ এ দু'টি নামই এক স্থানে উল্লিখিত হয়েছে। ‘রহম’ শব্দের অর্থ হচ্ছে দয়া, অনুগ্রহ। এই ‘রহম’ ধাতু হতেই ‘রহমান’ ও ‘রহীম' শব্দদ্বয় নির্গত ও গঠিত হয়েছে। রহমান শব্দটি মহান আল্লাহর এমন একটি গুণবাচক নাম যা অন্য কারও জন্য ব্যবহার করা জায়েয নেই।...

বিসমিল্লাহ এর নাম ও ইতিহাস জানুন · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION ১:১ بِسۡمِ اللّٰهِ الرَّحۡمٰنِ الرَّحِیۡمِ ১. রহমান, রহীম আল্লাহর নামে। ১. সাধারণত আয়াতের অনুবাদে বলা হয়ে থাকে, পরম করুণাময়, ...

23/08/2022

পায়ের সাথে পা মিলিয়ে নামাজে দাড়াতে বললে কয়, তুমি আহলে হাদিস | আল্লামা তারেক মনোয়ার | Allama Tareq Monwar

23/08/2022

গো*পন তথ্য ফাঁ*স তারেক মুনোয়ার আহলে হাদিস।

21/08/2022

সালাতের মধ্যে হাত তোলা (রাফ‘উল ইয়াদাইন) যাবে কি ?? আল্লামা তারেক মনোয়ার | Allama Tareq Monwar

18/08/2022

ইমাম ভুলে ৪রাকাত নামাজ ৩রাকাত পড়ালে, পুনরায় নামাজ পড়তে হবে কি⁉️

16/08/2022

মক্কা শরীফে কি ঘটেছিল তারেক মনোয়ার এর সাথে || আল্লামা তারেক মনোয়ার | Allama Tareq Monwar

15/08/2022

www.idfbd.com

কুরআন তেলাওয়াত এর পূর্বে পড়তে হয় أَعُوذُ بِاللَّهِ مِنَ الشَّيْطَانِ الرَّجِيمِ অর্থ: বিতাড়িত শয়তান থেকে আল্লাহর নিকট আশ্রয় প্রার্থনা করছি। আউজুবিল্লাহকে এক কথায় ‘তায়াউজ’ বলা হয়। কোরআন তেলাওয়াতের সময় যাতে শয়তান ধোঁকা দিতে না পারে সেজন্য কোরআন তেলাওয়াতের পূর্বে আল্লাহর কাছে শয়তান থেকে আশ্রয় চাওয়ার নিদের্শ দিয়ে আল্লাহ তায়ালা বলেন, (সূরা: নাহল, আয়াত: ৯৮)। فَاِذَا قَرَاۡتَ الۡقُرۡاٰنَ فَاسۡتَعِذۡ بِاللّٰهِ مِنَ الشَّیۡطٰنِ الرَّجِیۡمِ ‘যখন তুমি কোরআন তেলাওয়াত করবে তখন অভিশপ্ত শয়তান থেকে আল্লাহর কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করবে’

www.idfbd.com

14/08/2022

www.idfbd.com

সূরার ফাতিহার নাম ও কিছু বৈশিষ্ট্যঃ সূরা আল-ফাতিহা-ই সর্বপ্রথম কুরআন মজীদের একটি পূর্ণাঙ্গ সূরা হিসাবে রাসূলের প্রতি নাযিল হয়েছে। সৰ্বপ্রথম অহীর মাধ্যমে মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর প্রতি যে আয়াত বা সূরার অংশ নাযিল হয় তা হচ্ছে সূরা আল-আলাক’-এর প্রাথমিক আয়াত কয়টি। সূরা আল-মুদাসসির-এর প্রাথমিক কতক আয়াত এর কিছুদিন পর নাযিল হয়। কিন্তু এই খণ্ড আয়াতসমূহ নাযিল হওয়ার মধ্যে একটিও পূর্ণাঙ্গ সূরা ছিল না। পূর্ণাঙ্গ সূরা প্রথম যা নাযিল হয়েছে, তা হচ্ছে সূরা আল ফাতিহা। কুরআন মজীদের ১১৪ টি সূরার মধ্যে প্রত্যেকটির জন্য একটি নাম নির্দিষ্ট করা হয়েছে। এই নামকরণ ব্যাপারে কয়েকটি বিশেষ নীতি অনুসরণ করা হয়েছে। কোন কোন সূরার নাম রাখা হয়েছে এর প্রথম শব্দ দ্বারা। কোন সূরায় আলোচিত বিশেষ কোন কথা কিংবা তাতে উল্লেখিত বিশেষ কোন শব্দ নিয়ে তা-ই নাম হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে। আবার কোন কোন সূরার নামকরণ করা হয়েছে তার আভ্যন্তরীণ ভাবধারা ও বিষয়বস্তুকে সম্মুখে রেখে। কয়েকটি সূরার নাম রাখা হয়েছে কোন একটি বিশেষ ঘটনার প্রতি খেয়াল রেখে। সূরা আল-ফাতিহার নাম রাখা হয়েছে কুরআনে এর স্থান-মর্যাদা, বিষয়বস্তু-ভাবধারা, এর প্রতিপাদ্য বিষয় ইত্যাদির প্রতি লক্ষ্য রেখে। এদিক দিয়ে সূরা আল-ফাতিহার স্থান সর্বোচ্চ। কেননা অন্যান্য সূরার ন্যায় সূরা আল-ফাতিহার নাম মাত্র একটি নয়, অনেকগুলো। উল্লেখযোগ্য কয়েকটি নাম হচ্ছে,...

www.idfbd.com

07/08/2022

ইমাম যদি পান খায় তাহলে তার পিছনে নামাজ পড়লে নামাজ হবে কি ?

জিহাদকে কেন বৈধতা দেয়া হল? 31/07/2022

জিহাদকে কেন বৈধতা দেয়া হল?

জিহাদকে কেন বৈধতা দেয়া হল? যুদ্ধ আসলে ভালো কাজ নয়; যুদ্ধ-বিগ্রহ দাংগা-হাংগামা মানুষের জন্য কোন কল্যাণ বয়ে আনে না। তবে, বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে বাধ্য হয়ে এটার দারস্থ হতে হয়। যখন যুদ্ধ ছাড়া সমাজকে শান্তিপূর্ণ রাখার আর কোন পথ অবশিষ্ট্য থাকেনা তখনই বাধ্য হয়ে জিহাদের চুড়ান্ত স্তর যুদ্ধের মত কঠিন সিদ্ধান্ত নেয়ার অনুমতি দেয়া হয়। ঠিক তেমনি আল্লাহ তায়ালা জিহাদকে পবিত্র লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষার সর্বশেষ চেষ্টা হিসেবে বৈধ করেছেন।...

জিহাদকে কেন বৈধতা দেয়া হল? জিহাদকে কেন বৈধতা দেয়া হল? যুদ্ধ আসলে ভালো কাজ নয়; যুদ্ধ-বিগ্রহ দাংগা-হাংগামা মানুষের জন্য কোন কল্যাণ বয়ে আনে ন.....

20/07/2022

www.idfbd.com

জিহাদ ও যুদ্ধের পার্থক্য আজকে জিহাদ এবং ক্বিতাল শব্দ দুটোর ব্যাপক অপব্যবহার করা হচ্ছে। একদল সংগঠন কু’রআনের আয়াতগুলোতে জিহাদ এবং ক্বিতালের মধ্যে পার্থক্য না করে, জিহাদের জায়গায় ক্বিতাল করার প্রচারণা চালাচ্ছে। আরেকদল সংগঠন ক্বিতালের আয়াতগুলোকে সাধারণ জিহাদ অনুবাদ করে স্পষ্ট প্রতিরোধ এবং যুদ্ধের জায়গায় চুপচাপ বসে অপেক্ষা করা এবং অন্যায়ের সাথে আপোষ করে চলার জন্য প্রচারণা করছে। এই দুই পক্ষই দাবি করে যে, যেহেতু জিহাদ এবং ক্বিতাল সমার্থক শব্দ, তাই এই শব্দ দুটোকে একে অপরের জায়গায় বদল করা যায়। লক্ষ্য করলে দেখা যায় যে, এরা আয়াতগুলোতে জিহাদের জায়গায় ক্বিতাল এবং ক্বিতালের জায়গায় জিহাদ সুবিধামত বসিয়ে, তাদের ইচ্ছেমত অনুবাদ এবং ব্যাখ্যা করে, যেন তারা তাদের উদ্দেশ্য সফল করতে পারে। একারণে যখনই যুদ্ধ, সংগ্রাম, হত্যা ইত্যাদি সম্পর্কে কোনো আয়াত বা হাদিস পাবেন, প্রথমেই দেখে নেবেন আরবিতে শব্দটা কি জিহাদ নাকি ক্বিতাল।...

www.idfbd.com

কখন জিহাদ ফরজ তথা আবশ্যক হয় · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION 03/07/2022

কখন জিহাদ ফরজ তথা আবশ্যক হয় · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION

এবার আসুন জেনে নেওয়া যাক জিহাদ কখন একজন মুসলামানের উপর ফরজ হয়। কখন জিহাদ ফরজ তথা আবশ্যক হয়? অধিকাংশ ইসলামিক স্কলারের মতে নিম্নের কয়েকটি অবস্থায় জিহাদ ফরজ হয়। প্রথমত: মুসলিম ও অমুসলিম মুখামুখি হওয়া। “তোমরা তাদেরকে যেখানে পাও সেখানেই হত্যা করো”, “যতক্ষণ পর্যন্ত আল্লাহর বিধান প্রতিষ্ঠা না হয়, ততক্ষণ পর্যন্ত লড়াই করে যাও” — কুর’আনে এরকম কিছু আয়াত রয়েছে, যা দেখলে কিছু অমুসলিমদের খুশিতে দাঁত বের হয়ে যায়। তারা এই আয়াতগুলো পড়ে ভাবে, “এই তো পেয়েছি!...

https://www.idfbd.com/%e0%a6%95%e0%a6%96%e0%a6%a8-%e0%a6%9c%e0%a6%bf%e0%a6%b9%e0%a6%be%e0%a6%a6-%e0%a6%ab%e0%a6%b0%e0%a6%9c-%e0%a6%a4%e0%a6%a5%e0%a6%be-%e0%a6%86%e0%a6%ac%e0%a6%b6%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%95-%e0%a6%b9/

কখন জিহাদ ফরজ তথা আবশ্যক হয় · ISLAMIC DAWAH FOUNDATION এবার আসুন জেনে নেওয়া যাক জিহাদ কখন একজন মুসলামানের উপর ফরজ হয়। কখন জিহাদ ফরজ তথা আবশ্যক হয়? অধিকাংশ ইসলামিক স্ক...

Location

Category

Telephone

Address


Lalmohan
Lalmohan
LALMOHAN

Other Schools in Lalmohan (show all)